পেকুয়ায় গর্ভধারিণী মাকে পেটালেন ছেলে

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় জেসমিন আক্তার (৪৯) নামের এক গর্ভধারিণী মাকে পিঠিয়ে আহত করেছে নিজের ছেলে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আহত ওই মাকে।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টায় পেকুয়ার ভোলাইয়াঘোনা এলাকায় এমন এক হৃদয়বিদায়ক ঘটনা ঘটে।

আহত গর্ভধারিণী মা ওই এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের স্ত্রী।

আহত জেসমিন আক্তার বলেন, ঘরের জন্য একটি আলমিরা তৈরি করতে কিছু দিন আগে বাড়ির কয়টি ফুল গাছ কাটা হয়। এরপর কাঠ মিস্ত্রির সাথে পরামর্শ করলে সে একটি অন্য কাঠ দিয়ে তৈরি করে দিবে এবং এই ফুল গাছগুলো সে নিয়ে যাবে বলে কথা হয়। ঘটনার দিন কাঠমিস্ত্রী সেই কাটা গাছগুলো নিয়ে যেতে আসে। আমি তাকে গাছগুলো দিতে গেলে আমার ছেলে আরফাত বাঁধা দেয়। এতে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সে আমাকে লাথি কিল ঘুষি মারতে থাকে। পরে তার স্ত্রী কহিনুর আক্তার এসেও আমাকে মারধর করে বুকে ও শরীরে গুরুতর জখম করে। তার বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে সে কারণে অকারণে আমাকে নির্যাতন করে আসছে। সে আমার অন্য ছেলেকেও বাড়ীতে থাকতে দিচ্ছে না। নানা ধরনের হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। আমি প্রশাসনের হস্তেক্ষেপ কামনা করছি বলে জানান তিনি।

এ বিষয় নিয়ে আরফাতে সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার মুঠোফোনে সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরহাদ আলী বলেন, এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + seven =

আরও পড়ুন