ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় কক্সবাজার: সুবিধা বাড়বে সরকারি চাকরিজীবীদের

fec-image

বাংলাদেশের প্রধান পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে ‘ব্যয়বহুল শহর’ ঘোষণা করেছে সরকার। এর ফলে এখন থেকে সমুদ্রকন্যাখ্যাত শহরটিতে কর্মরত সরকারি চাকুরেরা মহানগরের সমান হারে বিভিন্ন ভাতা পাবেন।

গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কক্সবাজার শহর ও পৌর এলাকাকে ‘ব্যয়বহুল’ স্থান ঘোষণা করে এই আদেশ জারি করে। তবে সাধারণ নাগরকিদের ক্ষেত্রে এ আদেশের কোনো কার্যকারিতা থাকবে না।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম কর্তৃক জারি করা এ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার দেশের অন্যতম পর্যটন শহর কক্সবাজারের শহর/পৌর এলাকার নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদিসহ বাড়িভাড়া, যানবাহন ভাড়া, খাদ্য ও পোশাক সামগ্রীসহ অন্যান্য ভোগ্যপণ্যের মূল্য বিবেচনায় কক্সবাজার শহর/পৌর এলাকাকে ব্যয়বহুল হিসেবে ঘোষণা করেছে। এটি অবিলম্বে কার্যকর হবে।’

জানা গেছে, কক্সবাজার জেলা প্রশাসন থেকে ২০১৭ সালের শেষ দিকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে একটি চিঠি দেয়া হয়। এতে বলা হয়, কক্সবাজার একটি পর্যটন শহর। এখানে প্রতিবছর বিপুলসংখ্যক পর্যটক আসে। ছুটির দিনগুলোতে ১০-১২ লাখ পর্যটক অবস্থান করেন এখানে। ছুটির দিন ছাড়া বিশেষ করে পর্যটন মৌসুমে বা শীতের সময় ৬-৮ লাখ পর্যটক থাকেন। অন্য সময়ে দুই থেকে আড়াই লাখ পর্যটক থাকেন। এসব কারণে এখানে বিভিন্ন পণ্য ও সেবার মূল্য একটু বেশি। ফলে খাবার বা পরিবহন বাবদ বাড়তি অর্থ ব্যয় করতে হয়। যেটা অন্যান্য জেলায় করতে হয় না। এ কারণে তারা কক্সবাজারে কর্মরত সরকারি কর্মকর্তাদের বাড়তি ভাতা দেয়ার দাবি জানান। এরপর বিষয়টি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, ব্যয়বহুল, সুবিধা বাড়বে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 4 =

আরও পড়ুন