রাঙ্গামাটিতে ভূমিহীন ৩০৯০ পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর

fec-image

রাঙ্গামাটি জেলায় কয়েক দফায় ৩ হাজার ৯০টি ভূমিহীন দরিদ্র পরিবারকে দেয়া হচ্ছে জমিসহ ঘর। সোমবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই ঘর তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মুজিব বর্ষে “বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণা বাস্তবায়নে পরিবার প্রতি ২ শতাংশ খাসজমি বন্দোবস্ত প্রদানপূর্বক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে একক গৃহনির্মাণের মাধ্যমে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে দারিদ্র্যবিমোচনে বর্তমান সরকার কর্তৃক গৃহায়ন কর্মসূচির আওতায় পিছিয়ে পড়া অঞ্চল হিসেবে পরিচিত রাঙ্গামাটি জেলায় বসবাসরত ৩০৯০টি ভূমিহীন হতদরিদ্র পরিবারকে জমিসহ গৃহ প্রদান কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ তৃণমূল পর্যায় থেকে গত তিন বছরে বাছাই করে পর্যায়ক্রমে এই তালিকা প্রস্তুত করে। ইতিমধ্যেই রাঙ্গামাটির ১০ উপজেলায় ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ এবং ৫ম পর্যায়ে (১ম ধাপ) ২২৫২টি ঘরহীন পরিবারের মাঝে জমিসহ গৃহ প্রদান করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, সোমবার রাঙ্গামাটিতে ৫ম পর্যায়ের ২য় ধাপে নয় উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলায় ০৪টি, কাপ্তাইয়ে ৪০টি, কাউখালীতে ১৩টি, রাজস্থলীতে ২৫টি, বরকলে ৩৫টি, বিলাইছড়িতে ১১টি, বাঘাইছড়িতে ৪২২টি, লংগদুতে ১২৬টি এবং নানিয়ারচর উপজেলায় ০৪টি’সহ মোট ৬৮০টি গৃহ উপকারভোগী পরিবারগুলোর নিকট ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলায় ভূমিহীন পরিবারের সংখ্যা সর্বমোট ৩০৯০টি। ৫ম পর্যায়ের (২য় ধাপে) উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুতকৃত ঘরের সংখ্যা ৬৮০ টি, সোমবার উদ্বোধনের পর ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ এবং পর্যায়ে হস্তান্তরকৃত গৃহের সংখ্যা হবে ২৯৩২টি; তালিকানুসারে অবশিষ্ট ৯৬টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার বাকি থাকবে। পর্যায়ক্রমে তাদেরকেও গৃহ প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক মোশারফ হোসেন খান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন