সাফজয়ী পাহাড়ি রুপনা চাকমার পরিবার পাচ্ছে ঘর

fec-image

রাঙামাটির মেয়ে রুপনা চাকমা সাফজয়ী বাংলাদেশ দলের গোলরক্ষক হিসেবে মাঠে লড়াই করেছে। অবশেষে বিজয়ও নিশ্চিত হয়েছে তার দলের। এই প্রেক্ষিতে রুপনা চাকমার পরিবারকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘর দেওয়া হচ্ছে। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

তিনি এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, ‌‘দ্রুত সময়ের মধ্যে রুপনা চাকমার ঘর নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আমি ইতোমধ্যে নানিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশনা দিয়েছি। আজ বিকালে এলজিইডির প্রকৌশলী নিয়ে ঘর নির্মাণের বিষয়ে সরেজমিন দেখে আসবেন। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা এটি করে দিতে পারবো।’

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলার দুর্গম ভুঁইয়া আদাম গ্রামে রুপনা চাকমার বাড়ি । সাফজয়ী বাংলাদেশ দলের আরেক গর্বিত সদস্য ঋতুপর্ণা চাকমার বাড়ি কাউখালীর ঘাগড়া ইউনিয়নের মগাছড়ি গ্রামে।

জেলার দুই ফুটবলারের কীর্তিতে আনন্দের জোয়ার বইছে রাঙামাটিতে। সাফ সেরার গৌরব অর্জন করায় রুপনা ও ঋতুপর্ণার বাড়িতে মিষ্টি, ফলমূলসহ নানা উপকরণ নিয়ে গতকাল তাদের বাড়িতে যান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম, সাবেক জাতীয় ফুটবলার বরুন দেওয়ান, রাঙামাটি মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নিরুপা দেওয়ান প্রমুখ। জেলা প্রশাসক রুপনা ও ঋতুপর্ণার মায়ের হাতে দেড় লাখ টাকার করে চেক তুলে দেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) নেপালের কাঠমান্ডুতে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন বাংলাদেশের ফুটবল দল। গোলরক্ষক রুপনা চাকমা সেরা গোলকিপারের পুরস্কার অর্জন করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − ten =

আরও পড়ুন