আন্তর্জাতিক আদিবাসী ভাষা বর্ষ’র কর্মসূচি ঘোষণা

পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

আন্তর্জাতিক আদিবাসী ভাষা বর্ষ-২০১৯ উদযাপনের জন্য কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক আদিবাসী ভাষা বর্ষ উদযাপন কমিটি। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের তোফাজ্জল হক মানিক মিয়া হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তারা এ ঘোষণা করেন।

উদ্‌যাপন কমিটির আহ্বায়ক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা কর্মসূচি ঘোষণা করেন । ঘোষণায় তিনি বাংলাদেশের বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিসত্তার ভাষা সুরক্ষা ও বিকাশে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, পৃথিবীতে ব্যবহৃত ৬৭০০ ভাষার মধ্যে প্রায় ৪০ শতাংশ বিলুপ্তির ঝুঁকিতে রয়েছে। আর এই ঝুঁকিতে থাকা ভাষাগুলোর মধ্যে সিংহভাগই আদিবাসী ভাষা। আদিবাসীদের ভাষা রক্ষা করার জন্য জাতিসংঘ আদিবাসী বিষয়ক স্থায়ী ফোরামের সুপারিশের ভিত্তিতে ২০১৬ খ্রিস্টাব্দে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ ২০১৯ সালকে আন্তর্জাতিক আদিবাসী ভাষা বর্ষ হিসেবে উদযাপনের জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। তারই প্রে‌ক্ষি‌তে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হ‌লো।’

‘আন্তর্জাতিক আদিবাসী ভাষা বর্ষ ২০১৯’ উদ্‌যাপনের জন্য চার ধরনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচিগুলোর মধ্যে রয়েছে বিষয়ভিত্তিক বিভিন্ন সভা-সেমিনার আয়োজন, সক্ষমতা উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন, সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রচারমূলক কার্যক্রম ও গণমাধ্যমে এসব বিষয় তুলে ধরা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বছরব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে মাতৃভাষা নিয়ে একাধিক সেমিনার ও আলোচনা সভার আয়োজন হবে। বিভিন্ন জাতিসত্তার শিক্ষকদের একটি বা একাধিক শিক্ষক সমাবেশের আয়োজন করা হবে। নিজ নিজ মাতৃভাষায় যাঁরা লেখালেখি চর্চা করেন, তাঁদের জন্য আয়োজন করা হবে লেখক সমাবেশের। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিদ্যমান ভাষাগুলোকে সংরক্ষণ করার জন্য আঞ্চলিক মতবিনিময় বা ভাষা ডকুমেন্টশন কর্মশালার আয়োজন করা হবে। বিভিন্ন জাতিসত্তার অবস্থান অনুসারে আপাতত পুরো দেশটিকে আটটি ভাগে ভাগ করে কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। দেশের বিভিন্ন স্থানে বছরব্যাপী চলবে ক্ষুদ্র জাতিসত্তার শিল্পীদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাঁধন আরেং, সন্ধ্যা মালো, গণেশ সরেন, অমল বিকাশ ত্রিপুরা প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন