আর্মি এভিয়েশন ফরওয়ার্ড বেস উদ্বোধন করলেন সেনা প্রধান

fec-image

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আর্মি এভিয়েশন ফরওয়ার্ড বেস, চট্টগ্রামের উদ্বোধন এবং ২টি বেল ৪০৭ জিএক্সআই হেলিকপ্টারের অন্তর্ভূক্তি অনুষ্ঠান আজ (১১ অক্টোবর) চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি।

জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ‘সোনার বাংলা’ গড়ে তোলার পাশাপাশি একটি আধুনিক ও যুগোপযুগী সেনাবাহিনী গঠনের স্বপ্ন দেখেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সুযোগ্য ও গতিশীল নেতৃত্ব এবং আন্তরিকতায় জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে চলেছেন।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক উদ্যোগের কারনেই শাহ আমানত বিমানবন্দর, চট্টগ্রামে আর্মি এভিয়েশন ফরওয়ার্ড বেস নির্মাণ এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন ২টি বেল ৪০৭ জিএক্সআই হেলিকপ্টার আর্মি এভিয়েশন গ্রুপে বহরে অন্তর্ভূক্তি সম্ভব হয়েছে। এই মহতী উদ্যোগের জন্য প্রধানমন্ত্রী’র প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ।

আর্মি এভিয়েশন গ্রুপ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির মূল লক্ষ্য সেনাবাহিনীর আভিযানিক কার্যক্রমে প্রত্যক্ষভাবে বিমান সহায়তা প্রদান করা। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে নিয়োজিত সেনাসদস্যদের সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে লালমনিরহাট ও চট্টগ্রামে পৃথক দুটি এভিয়েশন বেস স্থাপনের কার্যক্রম শুরু করা হয়। ইতিমধ্যেই গত ০৩ মার্চ ২০২০ তারিখে লালমনিরহাট সেনানিবাসে আর্মি এভিয়েশন স্কুলের নবনির্মিত হ্যাঙ্গার কমপ্লেক্স উদ্বোধন করা হয়েছে।

আধুনিক সেনাবাহিনীর সাথে সামঞ্জস্যতা রেখে আর্মি এভিয়েশনে সংযোজিত হয়েছে আধুনিক হেলিকপ্টার ও সামরিক বিমান। বর্তমানে আর্মি এভিয়েশন গ্রুপের বহরে অত্যাধুনিক বিমান ও হেলিকপ্টার সংযুক্তির ধারাবাহিকতায় আজ যুক্ত হয়েছে ২টি অত্যাধুনিক বেল ৪০৭ জিএক্সআই হেলিকপ্টার। যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এই ২টি হেলিকপ্টার নবীন বৈমানিকদের প্রশিক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এছাড়াও বিভিন্ন আভিযানিক প্রয়োজন যেমন বিমান হতে অনুসন্ধান ও পর্যবেক্ষণ এবং স্কাউট হেলিকপ্টার হিসেবেও এই হেলিকপ্টারগুলো ব্যবহার করা যাবে। পাশাপাশি এই হেলিকপ্টারগুলোর মাধ্যমে চিকিৎসা সহায়তা, মিশন পরিচালনা ও সীমিত আকারে জরুরী রশদ সরবরাহ করা সম্ভব। আজকের এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২টি বেল ৪০৭ জিএক্সআই হেলিকপ্টার আর্মি এভিয়েশন গ্রুপের বহরে অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় নিঃসন্দেহে সেনাবাহিনীর সক্ষমতা বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে।

অনুষ্ঠানে ঊর্ধ্বতন সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা এবং গণমাধ্যম কর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: আইএসপিআর

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আর্মি এভিয়েশন ফরওয়ার্ড, উদ্বোধন, বেস
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three − 2 =

আরও পড়ুন