ইসরায়েলকে ১০০ কোটি ডলারের অস্ত্র দেওয়ার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

fec-image

ইসরায়েলকে প্রায় ১০০ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র সরবরাহের পরিকল্পনা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। চলতি সপ্তাহে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে এই পরিকল্পনার কথা মার্কিন কংগ্রেসকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ মে) এক কংগ্রেশনাল সহযোগী বিষয়টি ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ফিনান্সিয়াল টাইমসকে নিশ্চিত করেছেন। গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফাহতে ইসরায়েলি অভিযান নিয়ে মার্কিন বিরোধিতা ও চাপের মধ্যেই দেশটিকে অস্ত্র সরবরাহ উদ্যোগ নিচ্ছে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন।

গাজার ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় ব্যবহারের উদ্বেগ থেকে যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলকে ২০০০ পাউন্ড ওজনের বোমার একটি চালান আটকে দেওয়ার পর এই অস্ত্র সরবরাহের পরিকল্পনার কথা জানা গেলো। এসব বোমায় গাজায় বেসামরিক প্রাণহানি আরও বাড়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছিল বাইডেন প্রশাসন।

এই উদ্যোগ ও পরে রাফাহতে অভিযান নিয়ে ইসরায়েলে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধের হুমকি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ৭ অক্টোবর গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসন শুরুর পর এটিই ছিল ইসরায়েলের লাঘাম টেনে ধরতে বাইডেনের প্রথম প্রকাশ্য পদক্ষেপ। কিন্তু ১০০ কোটি ডলারের অস্ত্র সরবরাহের পরিকল্পনা প্রমাণ করছে বিস্তৃত আকারে ইসরায়েলে অস্ত্রের সরবরাহ বন্ধ করতে চায় না ওয়াশিংটন।

সোমবার বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সাংবাদিকদের বলেছেন, আমরা ইসরায়েলে সামরিক সহযোগিতা সরবরাহ অব্যাহত রেখেছি। আমরা নিশ্চিত করব যাতে ইসরায়েল পুরোপুরি তা পায়।

অপর এক মার্কিন কর্মকর্তা মঙ্গলবার বলেছেন, সূচি অনুসারে অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে। এই বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মন্তব্যের অনুরোধে তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেয়নি।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ইসরায়েলে ১০০ কোটি ডলারের অস্ত্র সরবরাহে বাইডেন প্রশাসনের পরিকল্পনার খবর প্রকাশ করেছিল।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন