খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ সেরা

fec-image

এইচএসসি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে খাগড়াছড়ি জেলায় এবছর পাশের হার ৪৯.৯৩ শতাংশ। ৬ হাজার ৮শ ৫৫জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। তারমধ্যে পাস করেছে ৩ হাজার ৩শ ৭২জন এবং ফেল করেছে ৩ হাজার ৪শ ৮৩জন।

জেলার মধ্যে সবচেয়ে ভালো ফলাফল করেছে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা। ফল হাতে পেয়েই আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠে ওই কলেজের ছাত্রছাত্রীরা। পুরো জেলায় মাত্র ১৫ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। তার মধ্যে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের ১৩ জন। বাকি দুটি লাভ করেছে রামগড় সরকারি কলেজ।

খাগড়াছড়িতে এইচএসসির ফলাফলে বরাবরের মতো এবছরও নিজেদের সাফল্য ধরে রেখেছে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ। চলতি বছরের ফলাফলে বিজ্ঞান বিভাগে ৮০ জনে ৭৩জন, মানবিকে ৪৩ জনে ৩৮ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৬জনে ২৫ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। এ কলেজ থেকে মানবিক বিভাগে ২জন ও বিজ্ঞান বিভাগে ১১ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ২৮৫ জনে ১৩৭ জন, মানবিকে ৪৬০ জনে ১৫৪জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪১৯ জনে ১৮২জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ পায়নি কেউ। অন্যদিকে খাগড়াছড়ি সরকারি মহিলা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৯৫ জনে ৩১জন, মানবিকে ২৫৭ জনে ৯৭জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১১৫ জনে ৪৫জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

রামগড় সরকারি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৫৩ জনে ২৫ জন, মানবিকে ২৬০ জনে ৬৭জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৫১জনে ১১০জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। এ কলেজে মানবিক বিভাগে ১জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

মহালছড়ি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬২জনে ৪২জন, মানবিকে ২১০ জনে ১২২জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৩৮ জনে ৫৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ১২২জনে ৭৭জন, মানবিকে ৫১৮ জনে ১৬৩জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৪৪ জনে ১০৫ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

মাটিরাঙ্গা ডিগ্রি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬৯ জনে ৬১জন, মানবিকে ৪২৫ জনে ২০১জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৪৪ জনে ৯৪জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। পানছড়ি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬০ জনে ৩৫জন, মানবিকে ৫৯৪ জনে ২৫৬জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৭৬ জনে ১১৮জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।
দীঘিনালা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ১৬৪ জনে ১১৯জন, মানবিকে ৮০১ জনে ৩২৯জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৩২জনে ১৪৮জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। লক্ষীছড়ি কলেজে মানবিকে ৪২ জনে ১৫ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ২ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

গুইমারা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬১ জনে ৬০জন, মানবিকে ৬৪ জনে ৪৯জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৫৩জনে ৪১জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। বৌদ্ধ শিশু ঘর হাইস্কুল এন্ড কলেজে মানবিকে ১৭ জনে ৮ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৩জনে ২জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। তবলছড়ি গ্রীণহিল কলেজে মানবিকে ১৪২ জনে ৯৮ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৮০ জনে ৭৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

বাবুছড়া কলেজে মানবিকে ৯৮ জনে ৪৬ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১২জনে ৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। চেঙ্গী সরিবালা স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ে মানবিকে ২২ জনে ১৮ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৬জনে ৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

অন্যদিকে জেলার কুজেন্দ্র-মল্লিকা মডার্ন কলেজে ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ২জনের মধ্যে ১জন শিক্ষার্থী পাশ করলেও মানবিক বিভাগে ১৯ জন পরীক্ষার্থীও মধ্যে কেউই পাশ করেনি। সব মিলিয়ে এ জেলায় এবার পাশের হার ৪৯.৯৩ পার্সেন্ট।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, পড়া-লেখায় মনোযোগী হলে শিক্ষার্থীদের ফলাফল করা সম্ভব হতো। তবে সমতলের তুলনায় পার্বত্য জেলার ফলাফল অনেকটা ভালো বলা যায়। পার্বত্য জেলা হলেও এ জেলার শিক্ষার্থীরা তেমন পিছিয়ে নেই।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ সেরা, খাগড়াছড়ি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 5 =

আরও পড়ুন