চকরিয়ায় গাছ কাটার বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহত

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সীমানা বেস্টনীর গাছ কাটার বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী ছেলে-মেয়েসহ একই পরিবারের চারজন গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনার পরপর প্রতিবেশি লোকজন এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় এক নারীকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেছে কর্তব্যরত চিকিৎসক।

রোববার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের মন্ডলপাড়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহতরা হলেন, লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের মন্ডলপাড়া এলাকার মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে মোজাহের হোসেন (৪০), তার স্ত্রী লাল বানু (৩৫), স্কুল পড়ুয়া মেয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী শাকি (১৫), অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছেলে মো: রাসেল (১৩)।

আক্রান্ত পরিবারের দাবি, উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের মন্ডলপাড়া এলাকার মৃত জালাল আহমদের ছেলে মোজাহের আহমদ দীর্ঘকাল ধরে তাদের পৈত্রিক জায়গা ভোগদখল করে আসছিলেন। রোববার দুপুরের দিকে তাদের বসতঘরের সীমানার গাছ কাটতে গেলে এ সময় বাঁধা দেন গৃহকর্তা মোজাহের আহমদের ভাই দিলদার হোসেন ও এজাহার হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গাছ কাটায় বাঁধা নেয়া নিয়ে ওইসময় দু’পক্ষের লোকজন তর্কবিতর্ক ও কথা কাটাকাটি নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। ঘটনার একপর্যায়ে দিলদার হোসেন ও তার অপর ভাই এজাহার হোসেন এবং তার স্ত্রী সন্তানেরা ক্ষীপ্ত হয়ে মোজাহের উপর অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়।

ওইসময় স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে মোজাহের স্ত্রী লালবানুকেও মারধর করে মাটিতে ফেলে দেয়। ওই সময় তাদের মেয়ে শাকি ও ছেলে রাসেল বাবা মোজাহের ও লালবানুকে উদ্ধার করতে গেলে তাদের চাচা দিলদার হোসেন ও এজাহারের স্ত্রী সন্তানের নেতৃত্বে তাদেরকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

চকরিয়া থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনার বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ঘটনার তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আহত, সীমানা বেস্টনী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 4 =

আরও পড়ুন