চকরিয়া-পেকুয়ায় প্রবাসীদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতে ২৩৪টি কমিটি গঠন

fec-image

চকরিয়া-পেকুয়ায় বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে ২৩৪টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি এরইমধ্যে কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

চকরিয়া-পেকুয়ায় সাম্প্রতিক সময়ে হাজারের অধিক প্রবাসী দেশে ফিরেছে। এদের মধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে মাত্র ৪৪ জনকে। এদের মধ্যে চকরিয়ায় ১৯ জন এবং পেকুয়ায় ২৫ জন। তবে তাদের অনেকে হোম কোয়ারেন্টাইন মানছেন না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন। এরইমধ্যে যারা নির্দেশনা মানছেন না তাদের বিরুদ্ধে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিদেশ থেকে যারা এসেছেন তারা অধিকাংশই হোম কোয়ারেন্টাইন কি তা জানেন না। ওইসব প্রবাসীরা স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে বিভিন্ন চায়ের দোকান, শপিং সেন্টারে এবং বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছেন।

পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. ছাবের আহমদ বলেন, এই উপজেলায় কতজন বিদেশ থেকে এসেছেন সঠিক তথ্য আমাদের হাতে নেই। তবে বিদেশফেরত ২৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনতে পুরো উপজেলায় ৬৩টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতি কমিটিতে ১২ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

এসব কমিটিতে স্থানীয় মেম্বার, চৌকিদারসহ সমাজের কিছু ব্যক্তিদের অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে এসব কমিটিকে মনিটরিং করছেন সংশ্লিষ্ট ইউপির চেয়ারম্যানরা। পুরো কমিটিকে মনিটরিং করছেন ইউএনও, পুলিশ প্রশাসন এবং স্বাস্থ্য বিভাগ।

চকরিয়ার ইউএনও নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে কতজন বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন তার সঠিক তথ্য বের করতে কাজ করছি। এরইমধ্যে এই উপজেলায় ১৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। যারা নির্দেশনা মানেননি তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পুরো উপজেলার বিদেশফেরতদের তথ্য সংগ্রহ এবং তাদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে ১৭১টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। চকরিয়া পৌরসভা এবং ১৮টি ইউপি মেম্বার চৌকিদার এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের এসব কমিটিতে রাখা হয়েছে। প্রতিটি কমিটিতে ১২জন সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। উপজেলা প্রশাসন পুরো উপজেলার গঠিত ১৭১ কমিটির মনিটরিংয়ের দায়িত্ব পালন করছে।

ইউএনও বলেন, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে যেসব কমিটি গঠন করা হয়েছে এদের কাজ হচ্ছে বিদেশফেরতদের তালিকা করা এবং হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা। যারা হোম কোয়ারেন্টাইন মানবেন না তাদের জরিমানাসহ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে আসা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, চকরিয়া, হোম কোয়ারেন্টাইন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − one =

আরও পড়ুন