চুক্তি বাস্তবায়ন না করার জন্য অনেকেই ওঠে পড়ে লেগেছে: ঊষাতন তালুকদার

fec-image

চুক্তি বাস্তবায়ন না করার জন্য অনেকেই ওঠে-পড়ে লেগেছে। যার ফলে পার্বত্যাঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিবেশ বিরাজ করছে। এর স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে হলে,পার্বত্যাঞ্চলে যে সমস্যা এটি শান্তিপূর্ণভাবে চুক্তি বাস্তবায়নের মাধ্যমে সমাধান করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে রাঙ্গামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট সম্মেলন কক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ২২তম বার্ষিক শাখা সম্মেলন ও কাউন্সিল উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সহ-সভাপতি ঊষাতন তালুকদার এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, পার্বত্যাঞ্চলে যারা বাংলা ভাষাভাষি রয়েছেন তাদের বিষয়গুলো আমলে রেখে তাদের সমস্যাগুলোর একটা সমাধানের দিকে যেতে হেব। এটিকে অহেতুক ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে মনগড়াভাবে রেখে রেখে দিলে কারো মঙ্গল হওয়ার কথা নয়। তাই আমাদের বুঝতে হবে এবং সহযোগিতা রাখতে হবে। যাতে করে চুক্তি বাস্তবায়ন করা যায়।

তিনি পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের নেতৃবৃন্দদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ছাত্র পরিষদের নেতৃবৃন্দদের অবশ্যই বর্তমানে পার্বত্য চট্টগ্রামে যে মাদকের ছড়াছড়ি তা থেকে ছাত্রদের দূরে সরানোর জন্য প্রয়োজনীয় উদ্দ্যোগ নিতে হবে। স্কুল কলেজে ছাত্র-ছাত্রীরা ঠিক মতো ক্লাস করতে পারে কিনা, শিক্ষকের বাস্তবতা ইত্যাদি নিয়ে সোচ্চার হওয়া জরুরী।

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি রিন্টু চাকমার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সুমন মারমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির জেলা সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর ত্রিপুরা নান্টু, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সাম্পাদিক শান্তি দেবী তঞ্চঙ্গ্যা প্রমুখ।

এরপর মিলন কুসুম তঞ্চঙ্গ্যাকে সভাপতি, জগদীশ চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও ইয়াংরাও ম্রোকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২৭ সদস্য বিশিষ্ট রাঙ্গামাটি জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়।

নতুন কমিটিকে শপথবাক্য পাঠ করান পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শ্রী সুমন মারমা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

One Reply to “চুক্তি বাস্তবায়ন না করার জন্য অনেকেই ওঠে পড়ে লেগেছে: ঊষাতন তালুকদার”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − fifteen =

আরও পড়ুন