জাপানের সেরা তরুণ বিজ্ঞানী হলেন বাংলাদেশের আরিফ হোসেন

fec-image

প্রথম বিদেশি হিসেবে জাপানের সেরা তরুণ বিজ্ঞানী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশের ডা. আরিফ হোসেন।

গত ২৪ অক্টোবর জাপানিজ সোসাইটি অব ইনহেরিটেড মেটাবোলিক ডিজঅর্ডার তাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করে।তিনিই প্রথম কোনো বিদেশি যাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করলো জাপান।

প্রতি বছর জাপানিজ সোসাইটি অব ইনহেরিটেড মেটাবোলিক ডিজঅর্ডার’স সেরা জাপানিজ তরুণ বিজ্ঞানী নির্বাচন করে থাকে। লাইসোসোমাল রোগের চিকিৎসা ব্যবস্থা উদ্ভাবনের জন্য এ বছর জাপানের সেরা তরুণ বিজ্ঞানী হলেন ডা. আরিফ।

পুরস্কার পাওয়ার পর গণমাধ্যমকে ডা. আরিফ হোসেন বলেন, “আমি অনেক আনন্দিত। এটা আমার ও বাংলাদেশের জন্য একটি অবিস্মরণীয় ঘটনা।”

ডা. আরিফ হোসেনের জন্ম গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর ভাটিয়াপাড়ার খুব সাধারণ পরিবারে। ১১ ভাইবোনের মধ্যে ডা. আরিফ হোসেন সবার ছোট। তিনি গ্রামের স্কুলে এসএসসি পর্যন্ত পড়াশোনা করেন। এরপর ঢাকার মিরপুর বাঙলা কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। সেখান থেকে প্রথমে এমবিবিএস পাস করে একই প্রতিষ্ঠান থেকে শিশু বিভাগে পোস্ট গ্রাজুয়েশন করেন।

ডা. আরিফ হোসেন জাপানের ওসাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে তিনি শিশু নিউরো-মেটাবলিক রোগে ক্লিনিক্যাল ফেলোশিপও করেন। বর্তমানে তিনি নিউরো-মেটাবলিক রোগের ওপর উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে ওই রোগের বিশেষজ্ঞ হিসেবে জাপানে সিনিয়র গবেষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: জাপানিজ সোসাইটি অব ইনহেরিটেড মেটাবোলিক ডিজঅর্ডার, তরুণ বিজ্ঞানী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − 18 =

আরও পড়ুন