তিস্তার পানিবণ্টন নিয়ে যা বললেন নরেন্দ্র মোদি

fec-image

তিস্তার পানিবণ্টন নিয়ে আলোচনা করতে দ্রুতই ভারতের একটি কারিগরি দল বাংলাদেশ সফর করবে বলে জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শনিবার (২২ জুন) নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক শেষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে মোদি এ আশ্বাস দেন।

এ সময় বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য ই-মেডিকেল ভিসা চালুর ঘোষণা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। একইসঙ্গে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জনগণের সুবিধার্থে রংপুরে একটি নতুন সহকারী হাইকমিশন খোলার উদ্যোগ নেওয়ার কথাও জানান তিনি।

মোদি আরও বলেন, বাংলাদেশ ভারতের বৃহত্তম উন্নয়ন অংশীদার এবং আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেই।

এর আগে, স্থানীয় সময় দুপুরে হায়দরাবাদ হাউজে পৌঁছালে শেখ হাসিনাকে অভিবাদন জানান নরেন্দ্র মোদি। পরে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন দুই সরকারপ্রধান।

প্রতিনিধি পর্যায়ের বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে ১০টি সমঝোতা স্মারক সই হয়। যেগুলোর মধ্যে ৭টি নতুন আর পুরানো তিনটি সমঝোতা স্মারক নতুন করে নবায়নের সিদ্ধান্ত হয়। এরপর কৈলাস হলে দুই প্রধানমন্ত্রী যৌথ সংবাদ বিবৃতি দেন।

উল্লেখ্য, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে শুক্রবার (২১ জুন) বিকেলে দিল্লির পালাম বিমানবন্দরে অবতরণ করেন শেখ হাসিনা ও তার সফরসঙ্গীরা। সফর শেষে শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় নয়াদিল্লি ত্যাগ করে রাত ৯টায় ঢাকায় অবতরণ করবেন তারা।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: তিস্তার পানিবণ্টন, বাংলাদেশ, ভারত
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন