ফাইতংয়ে কর্মহীন গৃহবন্দি দরিদ্র ৩শত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

fec-image

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রাদুর্ভাব রোধে ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে দেশজুড়ে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। এই লকডাউন বাস্তবায়নে দরিদ্র, অসহায় ও নিম্ন শ্রেণীর সুবিধাবঞ্চিত শ্রমজীবিরা তাদের জীবিকা হারিয়ে গৃহবন্দী হয়ে দিন অতিবাহিত করছে। ফাইতংয়ে সমাজের এসব অসহায়-দরিদ্র ও কর্মহীন তিনশত পরিবারের পাশে বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী তুলেদেন ফাইতং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ এইচ এম আহসান উল্লাহ। ফাইতং ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় হতদরিদ্র ও কর্মহীন মানুষদের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে তুলে দেন তিনি।

বুধবার ও বৃহস্পতিবার (দুইদিন) চকরিয়া উপজেলার সীমান্ত ফাইতং ইউনিয়নস্থ বিভিন্ন এলাকায় শেখ এইচ এম আহসান উল্লাহ এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি ও সরকার ঘোষিত টানা লকডাউন মোকাবেলায় এই কঠিন সময়ে খেটে খাওয়া দিনমুজুর, দুস্থ, অসহায় ও শ্রমজীবি মানুষের কর্ম বন্ধ থাকার কারণে তারা জীবিকা হারিয়ে চরম ভাবে সংকটে পড়েছে। এছাড়াও শুরু হয়েছে পবিত্র মাহে রমজান মাস। সবমিলিয়ে বড়ই কঠিন সময় পার করছেন দরিদ্র ও নিম্ম আয়ের মানুষেরা।

ফাইতং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ এইচ এম আহসান উল্লাহ বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ আজ মানুষের জীবনকে মহাসংকটে ফেলে দিয়েছে। মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য সরকার ঘোষিত সকল নির্দেশনা সবাইকে মানতে হচ্ছে। এ সংকটময় মুহূর্তে দরিদ্র, অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষের কথা চিন্তা করে মানবিক সহায়তা হিসেবে নিজস্ব তহবিল থেকে এসব উপহার সামগ্রী বিভিন্ন পেশার শ্রমজীবি মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। মানুষ অত্যান্ত কষ্টে দিনাতিপাত করছে। এমন সময় তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

তিনি আরও বলেন, করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে গেল বছরও এলাকার দরিদ্র, অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষকে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছি। বর্তমান সময়ে অসহায় কর্মহীন হয়ে পড়া ২শত পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, আলু, সাবান, সবজি, খেজুর, চিনিসহ বিভিন্ন উপকরণ সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়।

এছাড়া যারা লোকলজ্জার ভয়ে না খেয়ে থাকবে, কারো সহযোগিতা চাইবে না এধরণের পরিবারকে চিহ্নিত করে তাদের বাসায় গোপনে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − one =

আরও পড়ুন