বান্দরবানে সাবেক যুবলীগ নেতার বাবার বিরুদ্ধে মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ

fec-image

আদালতের আদেশ অমান্য করে মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে এক প্রভাবশালী ব্যবসায়ী ও সাবেক আলীকদম উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এর বাবার বিরুদ্ধে।

বান্দরবানের আলীকদম বাস টার্মিনাল দানু সর্দার পাড়া জামে মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। এ ব্যাপারে আলীকদম থানায় অভিযোগ পত্র দায়ের করেছেন আলীকদম মসজিদ কমিটির সভাপতি ও দাতা হাজী দানু মিয়া সর্দার।

জানা যায়, ২৮৮ নং আলীকদম মৌজার ২২৪ হোল্ডিং আন্দরের ১. ২০ এককের দ্বিতীয় শ্রেণীর জমির দখল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মসজিদ কমিটির সাথে বিবাদ চলছিল। মসজিদ কমিটির দাবি অন্যায়ভাবে সুলতান আহমেদ জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করেন। এরপর ২০০৭ সালে বিভাগীয় কমিশনার আদালত জমিটিতে সকল প্রকার স্থাপনার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

নিষেধাজ্ঞা সত্বেও সুলতান আহমেদ (ডিলার) মসজিদের জায়গায় স্থাপনা নির্মাণ কাজ শুরু করেন। সুলতান আহমেদ বসতবাড়ি মর্মে সংস্কারের আবেদন করলে আদালত ২০১২ সালে সুলতান আহমেদকে সাময়িক সংস্কারের আদেশ দেন। কিন্তু পরবর্তীতে বিবাদ চলাকালীন দখল না করতে উভয় পক্ষকে নির্দেশ দেন আদালত। কিন্তু সুলতান আহমেদ (ডিলার) কোর্টের আদেশ অমান্য করে স্থানীয় ও ছেলের রাজনৈতিক প্রভাব কাজে লাগিয়ে জমিতে ছাদ ঢালাই করে বাণিজ্যিক স্থাপনা নির্মাণ করেন, এবং অনুগত লোকদের দিয়ে জমি দখলে নেন।

এ ঘটনায় মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে আলীকদম থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার পর নির্মাণ কাজ আপাতত বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

স্থানীয় মুসুল্লিদের অভিযোগ, সুলতান আহমেদ (ডিলার) ও তার ছেলে সাবেক যুবলীগ নেতা আবুল কালাম মসজিদের জায়গা জোরপূর্বক দখলের পাঁয়তারা করছেন।

এ বিষয়ে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য এনামুল হক বলেন, ” মসজিদের জায়গা দখল করা গর্হিত কাজ, আমরা মসজিদ কমিটি এর প্রতিবাদ জানাই। আইনের আশ্রয় নিয়েছি। এ বিষয়ে কোর্টের আদেশকে মান্য করবো।”

মসজিদ পরিচালনা কমিটির মামলা পরিচালনার দায়িত্বে থাকা জাহাঙ্গির আলম জানান, ” স্থানীয় মুসল্লিরা এই ভূমি দখল কারীদের ওপর ক্ষিপ্ত। মামলাটি কদিনের মধ্যে সমাধান হওয়ার কথা। কিন্তু তারা আদালতের তোয়াক্কা করছে না।”

মসজিদ পরিচালনা কমিটির আরেক সদস্য সেহের আলম জানান, ” মুসলিম হিসেবে মসজিদের সম্পত্তি রক্ষা করা নৈতিক দায়িত্ব, আমরা কোর্টের সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।”

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মোজাম্মেল হক মোজাফফর জানান, ১৯৮৬ সালে দেশীয় দলিল মূল্যে তিনি এবং তার বাবা দানু মিয়া সর্দার মসজিদকে জমিটি দান করেন এবং মসজিদকে দখল বুঝিয়ে দেন। পরবর্তিতে ১৯৯৮ সালে সুলতান (ডিলার) মসজিদের জায়গা নিজের দাবি করে উল্টো মসজিদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ মামলা করেন। তারপর থেকে বিভিন্নভাবে জমিটি দখলের চেষ্টা করছেন সুলতান আহমেদ (ডিলার) ও তার ছেলে সাবেক যুবলীগ নেতা আবুল কালাম।

সুলতান আহমেদ ডিলারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ছেলে আবুল কালামের সাথে এ বিষয়ে কথা হয় তিনি জানান, “আইনত যদি মসজিদ জায়গা পায় তবে আমি দিয়ে দেবো। আমার জায়গায় আমি স্থাপনা করেছি, এটা দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা একটি ঝামেলা। আদালতের রায়ের জন্য আমরা অপেক্ষা করছি।”

এ বিষয়ে আলীকদম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী রকিব উদ্দিন বলেন “এটা দীর্ঘদিন ধরে চলা একটি বিবাদ। আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি। আপাতত কাজ বন্ধ করে দু পক্ষকেই নির্বৃত্ত রেখেছি। যেহেতু ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিষয় তাই আমরা চেষ্টা করছি সংঘাত এড়িয়ে স্থানীয় সম্প্রীতি বজায় রাখতে।”

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আলীকদম উপজেলা যুবলীগ, আলীকদম বাস টার্মিনাল দানু সর্দার পাড়া জামে মসজিদ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − thirteen =

আরও পড়ুন