ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৬

fec-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলস্টেশনে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১৬ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতের সংখ্যা অন্তত ১০০ জন।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) মধ্যরাত ৩টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তূর্ণা নিশীথা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার দিকে আর উদয়ন এক্সপ্রেস সিলেট থেকে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল। কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মাসুদ উল আলম দুর্ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন।

নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। সিগন্যাল না মানায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান। তিনি বলেন, ‘নিহতের সংখ্যা বেড়ে এখন ১৫ জনে দাঁড়িয়েছে।’

রাতে ঘটনাস্থল থেকে ইউএনও মাসুদ উল আলম জানান, ‘ঘটনাস্থলে ৯টি লাশ রয়েছে, এরমধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও চার জন নারী। কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আহত ২৮ জন ভর্তি হয়েছেন, তাদের মধ্যে দু’জন মারা গেছেন। এছাড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে দু’জন মারা গেছেন। কুমিল্লায় ৯ জন ভর্তি আছেন, এদের একজন মারা গেছেন, তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। উদ্ধার কাজ চলছে। আমরা কন্ট্রোল রুমও খুলেছি। স্থানীয়রা আমাদের জানিয়েছেন, প্রায় ১০০ লোক আহত হতে পারেন।’

এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের হেল্প ডেস্কের দায়িত্বরত ফায়ারম্যান বরকতুল্লা।

দুর্ঘটনার পর ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম-সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − four =

আরও পড়ুন