মাটিরাঙ্গা উপজেলা আ’লীগের নতুন নেতৃত্বকে স্বাগত জানালেন বিদায়ী সভাপতি

fec-image

তিল তিল করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করার কথা উল্লেখ করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্যবিদায়ী সভাপতি মো. শামছুল হক বলেছেন, তৃণমুল নেতাকর্মীদের আকাঙ্খার ভিত্তিতে যোগ্য নেতৃত্বের হাতে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব তুলে দেয়া হয়েছে। মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্বকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, মানুষকে অপমান করে নেতা হওয়া যায়না। নেতা হতে হলে মানুষকে সম্মান করতে জানতে হয়। মানুষকে ভালোবাসতে হয়।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) বিকালের দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্যবিদায়ী সভাপতি মো. শামছুল হক এবং নব-নির্বাচিত সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান এবং সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমাকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ সব কথা বলেন।

মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ ফরাজীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন লিটনের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্যবিদায়ী সভাপতি মো. শামছুল হক, নব-নির্বাচিত সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান ও নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা ছাড়াও মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জালাল মজুমদার বক্তব্য রাখেন।

সংবর্ধনার জবাবে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান বিএনপি জোট শামনামলের দমন-পীড়নের কথা উল্লেখ করে বলেন, সেদিনও আমরা দমে যাইনি। কমসংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে মো. শামছুল হকের নেতৃত্বে শুরু করে আজ হাজারো নেতকর্মীর সুসংগঠিত সংগঠন আওয়ামী লীগ। মাটিরাঙ্গা অওয়ামী লীগে ব্যক্তিপুজার রাজনীতি চলবেনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরে খাগড়াছড়ি আওয়ামী লীগের অভিভাবক কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি। আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীরা বারবার দলের শৃঙ্খলা ভেঙেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা হবেনা। শৃঙ্খলা ভঙ্গকারীদের স্থান আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনে হবেনা।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়কে ‘মাদকমুক্ত’ ঘোষণা করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা বলেন, মাদকসেবী, মাদক ব্যবসায়ী ও দুর্নীতিবাজদের জন্য দরজা খোলা আছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কার্যালয় হবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের তীর্থভুমি। তিনি কারো নাম উল্লেখ না করে বলেন, যে সকল নেতাকর্মী এখন ব্যাক্তিপুজা করছেন, তারা সঠিক পথে ফিরে আসুন। সদ্যবিদায়ী সফল সভাপতি মো. সামছুল হকের পরামর্শে দলীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনারও ঘোষণা দেন সাবেক ছাত্রনেতা সুবাস চাকমা।

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতেই মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে সংবর্ধিত নেতৃবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ, মাদক
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + ten =

আরও পড়ুন