মিয়ানমার সেনাদের ঈশ্বরের মতো পূজা করতে বললেন উইরাথু

fec-image

মিয়ানমারের পার্লামেন্টে আসীন সেনা কর্মকর্তাদের ঈশ্বরের মতো পূজা করতে বললেন উগ্র-জাতীয়তাবাদী বৌদ্ধভিক্ষু উইরাথু।

ইয়াঙ্গুনের সিটি হলে গত ৫ মে সেনা-সমর্থিত এক সমাবেশে এ আহ্বান জানান তিনি।

সমাবেশে উইরাথু বলেন, ‘বর্তমানে সামরিক আইনপ্রণেতারা পার্লামেন্টে রয়েছেন ঠিকই, কিন্তু আইনপ্রণেতা হিসেবে তারা কোনো বেতন নেন না। সেনা হিসেবে তারা শুধু বেতন নিয়ে থাকেন। তারা দেশকে সুরক্ষা দিচ্ছে। আর এ জন্য ঈশ্বরের মতো তাদের উপাসনা করা উচিত।

স্থানীয় গণমাধ্যম খিনথিটনিউজ ওই সমাবেশের একটি ভিডিও ধারণ করে এবং পরে তা ফেসবুকে প্রকাশ করে। বুধবার এ খবর দিয়েছে ইউসিএ নিউজ।

উইরাথু আরও বলেন, ‘কিন্তু বর্তমানে সেনাদের শত্রুর মতো ঘৃণা করে। এমন পরিস্থিতিতে সংবিধানের সংশোধন সম্ভব নয়।’ মিয়ানমারের সামরিক খসড়া সংবিধানের পরিবর্তনের ঘোরবিরোধী উইরাথু। দেশের প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য সংবিধানের পরিবর্তন আনতে কাজ করছেন স্টেট কাউন্সিলর হিসেবে ক্ষমতায় থাকা অং সান সু চি। মিয়ানমারের সংবিধান অনুসারে, বিদেশিকে কেউ বিয়ে করলে প্রেসিডেন্ট হতে পারেন না। সু চির ব্রিটিশ স্বামী মাইকেল অ্যারিস ১৯৯৯ সালে মারা যান।

রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর বর্বর অভিযান চালানোর অভিযোগে সেনা প্রধানকে অভিযুক্ত করলে সমালোচনায় মুখর হন ‘বার্মিজ বিন লাদেন’ হিসেবে পরিচিত উইরাথু। তার মুসলিমবিরোধী বক্তব্য ২০১৩ ও ২০১৪ সালে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা উসকে দিয়েছিল। ধর্মীয় হিংসাত্বক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে ২০১৭ সালে মার্চে তাকে তলব করেছিল স্টেট সাংঘা কমিটি। মুসলিমবিরোধী কন্টেন্টস প্রকাশ ও প্রচারের অভিযোগে উইরাথুর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট জব্দ করেছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

২০০১ সালে তিনি মুসলিমবিরোধী এবং জাতীয়তাবাদী একটি গ্রুপ গঠন করেন, যার নাম ছিল ৯৬৯ গ্রুপ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − 5 =

আরও পড়ুন