রামগড়ে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বিশ্ব ত্রিপুরা বিজয়ী

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামগড়:

খাগড়াছড়ির রামগড়ে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী বিশ্ব প্রদীপ ত্রিপুরা বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এ উপজেলায় আওয়ামী লীগ থেকে তিনিই সর্বপ্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন।

তার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ১৬ হাজার ১শ’২৯ টি। একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু বকর ছিদ্দিক পেয়েছেন দুই হাজার ১শ’ ২০ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার ফারুক। তিনি পেয়েছেন ৯ হাজার ৮শ’ ১২ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি কাজী শিপন পেয়েছেন ৮ হাজার ৯৬  ভোট। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী হাসিনা আক্তার। তিনি পেয়েছেন ৯ হাজার ৯৫ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী নাসিমা আহসান নিলা পেয়েছেন ৮ হাজার ৩শ’ ৯৫ ভোট।

উপজেলা পরিষদে স্থাপিত কন্ট্রোল রুম থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে ইসরাত সোমবার রাত ৮টায় বেসরকারিভাবে নির্বাচনের এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

উপজেলার ১৬টি ভোট কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হলেও বেলা ১০টা পর্যন্ত অধিকাংশ কেন্দ্রই ছিল প্রায় ভোটার শূণ্য। পরে কিছু কিছু ভোটার ভোট দিতে আসতে শুরু করেন কেন্দ্রে। পৌরসভার প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রসহ পৌর এলাকার অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম থাকায় ভোট গ্রহণে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও নিরাপত্তায় নিয়োজিতরা সকাল থেকেই অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে। ভোটার উপস্থিতি কম হলেও প্রতিটি কেন্দ্রে আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা ছিল ব্যাপক। পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসারবাহিনীর সদস্য ছাড়াও বিপুল সংখ্যক সেনাবাহিনী ও বিজিবি সার্বক্ষণিক টহলে ছিল কেন্দ্রগুলো আশেপাশে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও ছিলেন বেশ তৎপর। বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটার উপস্থিতি কিছুটা বাড়তে থাকে। তবে পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিল বেশী। দুপুরে বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র, সোমা চন্দ্র কার্বারীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রসহ পৌর এলাকার কয়েকটি কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়ার অভিযোগ উঠে।

এ অভিযোগে বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার ফারুকের একজন এজেন্টকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে ইসরাত। ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী কাজী শিপনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ কেন্দ্রে টিয়া প্রতীকে দেয়া সীল মোহরসহ ছয়টি ব্যালট পেপার বাতিল করেন প্রিজাইডিং অফিসার।

এদিকে, সকল প্রকার কারচুপি ও জালিয়াতি থেকে নির্বাচনকে সম্পূর্র্ণ স্বচ্চ রাখতে রবিবার রাতভর উপজেলার প্রতিটি ভোট কেন্দ্র নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে রাখে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

একাধিক কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার জানান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী শনিবার রাতে দফায় দফায় কেন্দ্রগুলো পর্যবেক্ষনে আসেন। ফলে কেন্দ্রের দায়িত্ব প্রাপ্তরা বেশ নিরপদ বোধ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: রামগড়ে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বিশ্ব ত্রিপুরা বিজয়ী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 5 =

আরও পড়ুন