রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে নেতিবাচক মন্তব্য করলেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান

fec-image

এবছরের ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে নেয় দেশটির সেনাবাহিনী। ক্ষমতাসীন ন্যাশন্যাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) সরকারকে উৎখাত করা হয়। গ্রেফতার করা হয় দলটির নেত্রী অং সান সু চি-কে। এ ঘটনার প্রায় পাঁচ মাসের মাথায় বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে অবস্থান স্পষ্ট করলেন মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং।

মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং চীনা ভাষার স্ফিংস টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “মিয়ানমারের আইনের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ না হলে সেখানে বিবেচনার কী আছে? আমি মনে করি না, বিশ্বের এমন কোনও দেশ আছে যারা নিজেদের শরণার্থী আইনের বাইরে গিয়ে শরণার্থী গ্রহণ করবে।”

মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক আরও বলেন, “আমাদের স্বাধীনতা অর্জনের পর আদমশুমারিতে ‘বেঙ্গলি’, ‘পাকিস্তানি’ ও ‘চিটাগাং’ শব্দ যোগ করা হয়েছিল। কিন্তু ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি আমরা কখনও মেনে নিইনি।”

প্রকাশিত সাক্ষাত্কার পূর্ণ বিবরণী বিশ্লেষণ করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, মিয়ানমারের ‘জান্তা নেতার’ ওই বক্তব্য রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরায় অনিশ্চয়তার ছায়া ফেলছে।

তিনি মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবেন কি না—এ প্রশ্নের জবাবে ওই নেতিবাচক মন্তব্য করেন। তবে কি রোহিঙ্গাদের পক্ষে আন্তর্জাতিক চাপ কোনও কাজে আসেনি? এ প্রশ্নের জবাবেও তিনি বলেন, চাপে কাজ হবে না।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার, রোহিঙ্গা, সেনাপ্রধান
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 13 =

আরও পড়ুন