সাংবাদিকের স্ট্যাটাসে মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ি করে দেওয়ার ঘোষণা প্রশাসনের

fec-image

একজন সাংবাদিকের দু’কলম স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে সরকারি তহবিলে বাড়ি পাচ্ছেন উখিয়ার হলদিয়াপালং এর বীর মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়ার টিন ও ত্রিপলের ছাউনির খবর ভাইরাল হওয়ার ২৪ ঘন্টার ভেতরেই কক্সবাজারের জেলা প্রশাসকের নির্দেশে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তাকে দেয়া হবে “বীর নিবাস।”

জাতির এই শ্রেষ্ঠ সন্তান ভাঙ্গা টিন আর ত্রিপলের ছাউনির নিচে ৫০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন।
ভাঙ্গা ত্রিপলের ছাউনির ঘরে বসবাস করে অনেকদিন অসুস্থতায় ভুগছিলেন। বেশ কয়েকদিন আগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বীর মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়া।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) গভীর রাতে গুরুতর অসুস্থতার কারণে নিজের ভাঙ্গা বাড়িতে থাকতে না পেরে আশ্রয় নেয় মেয়ের বাড়িতে। ওখান থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়া। বীর মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়ার অসুস্থতার খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে ছুটে যান সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মাহামুদুল হক চৌধুরী, জেলা পরিষদের সদস্য আশরাফ জাহান কাজল, তরুন যুবনেতা ইমরুল কায়েস চৌধুরী। ইমরুল কায়েস চৌধুরী তার ফেসবুকে বীর মুক্তিযোদ্ধার অবস্থা নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন।

স্ট্যাটাসটি কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের নজরে পড়লে সাথে সাথে তিনি উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়ার বাড়িতে গিয়ে খোঁজখবর নেয়ার নির্দেশনা দেন।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সরেজমিনে দেখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিজাম উদ্দিন। উখিয়া হলদিয়াপালং এর বীর মুক্তিযোদ্ধা দুদু মিয়াকে একতলা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন।

সাংবাদিকের স্ট্যাটাসেই স্বাধীনতার ৫০ বছর পরে সরকারি সহায়তায় বাড়ি পেতে যাচ্ছেন এই যোদ্ধা। বাড়ির নামকরণ করা হয়েছে বীর নিবাস।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + ten =

আরও পড়ুন