সীমান্তের ডায়রিয়া আক্রান্ত আমঝিরিপাড়ায় চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে এলেন ১১ বিজিবি

fec-image

বান্দরবানের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী দূর্গম আমঝিরিপাড়া ও আশপাশের এলাকার মানুষের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে এসেছে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের ১১বিজিবির সদস্যরা। রবিবার (১১জুলাই) নাইক্ষ্যংছড়ি বিজিবি জোনের উদ্যোগে দূর্গম এলাকার ১৪০ জন নারী-পুরুষ ও শিশুর মাঝে দিনব্যাপী চিকিৎসা সহায়তা ও ঔষুধ বিতরণ করা হয়।

জানা গেছে, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর থেকে অন্তত ৪০কি:মি দূরবর্তী আমঝিরিপাড়াটি আলীকদম সীমান্ত লাগোয়া। এখানকার অধিকাংশ মানুষ ম্রো জনগোষ্ঠি। দোছড়ি ইউনিয়নের আওতাধীন ৩নং ওয়ার্ডের এই পাড়ায় সম্প্রতি প্রতিটি ঘরে ঘরে পেট ব্যাথা, বমি, ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে মানুষ।

ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যু এবং ১৪ জন উপজেলা সদরে এসে চিকিৎসা নিলেও আমঝিরিপাড়া ও পাশ্ববর্তী এলাকার অন্যান্য মানুষের চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

এই অবস্থায় এসব গ্রামের মানুষের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে আসে নাইক্ষ্যংছড়ি ১১বিজিবি। রবিবার দোছড়ির ক্ষোক্ষ্যং চাকপাড়ায় বিজিবি জোনের মেডিক্যাল অফিসার ক্যাপ্টেন মু: জাহিদুল ইসলাম ভূঞার নেতৃতে মেডিকেল টিমের সদস্যরা দুস্থ্য ও অসহায় জনসাধারণের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।

আমঝিরিপাড়া ছাড়াও বাইসন ত্রিপুরাপড়া, ক্রিংথই মুরংপাড়া, আকংপাড়া, আমঝিরি মুখ মুরংপাড়া, আলীথংঝিরি পাড়া, ম্যারোমুরং পাড়া এবং ইংলং মুরংপাড়ার অন্তত ১৪০ জন নারী-পুরুষ ও শিশুকে চিকিৎসা ও বিনামূল্যে ঔষুধ সরবরাহ করা হয়।

এই বিষয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি ১১বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আবদুল আজিজ আহমেদ বলেন, দোছড়ির দূর্গম এসব গ্রামে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া ডায়রিয়া, পেটব্যথা এবং মাথা ব্যথাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সরেজমিনে চিকিৎসা প্রদান ও ঔষুধ দিয়েছে বিজিবির মেডিকেল টিম।

তিনি আরও জানান, বিজিবি নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব, সীমান্তরক্ষার পাশাপাশি পাহাড়ে বসবাসরত নাগরিকদের যেকোন আপদকালীন সময়ে তাদের পাশে থেকে সর্বাত্ত্বক সহায়তা করে আসছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 5 =

আরও পড়ুন