১৬ বছরে পা দিয়েছে আইসিটি ক্যারিয়ার

fec-image

২০০৪ সালের ১ আগস্ট যাত্রা শুরু হয়েছিল আইসিটি ক্যারিয়ার এর। বৃহস্পতিার (১ আগষ্ট) প্রশিক্ষণের ১৬ বছরে পা দিয়েছে নাছিমা এনাম ফাউন্ডেশনের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান আইসিটি ক্যারিয়ার। সমাজসেবা অধিদফতরের নিবন্ধিত অন্যতম সমাজসেবামূলক সংগঠন এটি। “তথ্য প্রযুক্তি প্রশিক্ষণে নতুন ধারা” স্লোগানকে সামনে রেখে কর্মমূখী প্রশিক্ষণে সবসময় সচেষ্ট ছিল আইসিটি ক্যারিয়ার।

১৬ বছরের পথ চলায় আইসিটি ক্যারিয়ার বেশ বড় পরিসরে নিরবিচ্ছিন্নভাবে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, চাকুরীপ্রার্থী, সরকারী-বেসরকারী চাকরিজীবী, গৃহিণী এমনকি অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও দলে-দলে প্রশিক্ষণ নিয়েছে আইসিটি ক্যারিয়ার- এ।

সাধারণ প্রশিক্ষণার্থী ছাড়াও রোটারি ইন্টারন্যাশনালসহ আরো বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সহায়তায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে পাঁচ শতাধিক নার্সকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার।

বাংলাদেশ জাতীয় বধির সংস্থাসহ আরো বেশ কয়েকটা সামাজিক সংগঠনের সুপারিশে এ পর্যন্ত ৪৬০ জন প্রতিবন্ধীকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার।

এসিড সার্ভাইভারস ফাউন্ডেশনের সুপারিশে ২০ জন এসিড ভিকটিমকে সম্পূর্ন বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার।

উল্লেখ্য অফিস ম্যানেজমেন্ট /গ্রাফিক্স ডিজাইন/ পিসি হার্ডওয়্যার মেইনটেন্যােন্স/ বেসিক ওয়েব ডিজাইন/পিএইচপি/ওয়েব ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট/ নেটওয়ার্কিং/অটোক্যাড/ একাউন্টিং সফটওয়্যার ট্যালি/ থ্রিডি স্টুডিও ম্যাক্স/ স্কেচ আপ/ সি-শার্প/ এএসপি ডট নেট/৬ মাস মেয়াদী ডিপ্লোমা/১ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমাসহ অন্যান্য কোর্সে প্রশিক্ষণ দেয় আইসিটি ক্যারিয়ার ।

ষোড়শ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আইসিটি ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠাতা এহছান খান পাঠান বলেন, “একটি প্রতিষ্ঠান ১৫ বছর সুনামের সাথে চালিয়ে নেয়া আসলেই অনেক বড় ব্যাপার। এর জন্য শোকর আদায় করছি আল্লাহ পাক এর দরবারে। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি তাদের নিকট যারা দীর্ঘ এ পথ চলায় পাশে ছিলেন। শুরু থেকে এ পর্যন্ত কাজ করে যাওয়া সকল প্রশিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীর শ্রমকে সম্মানের সাথে স্মরণ করছি।”

আইসিটি ক্যারিয়ার এর নির্বাহী পরিচালক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, একটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের প্রাণ হচ্ছে প্রশিক্ষণার্থীরা। আমরা প্রক্ষিণার্থীদের সর্বোচ্চ আন্তরিকতায় প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সুবিধা দেয়ার ব্যাপারে কখনো কার্পন্য করিনি।”

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আইসিটি ক্যারিয়ার, নাছিমা এনাম ফাউন্ডেশন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × five =

আরও পড়ুন