ভারতে পাঁচ রোহিঙ্গা আটক

fec-image

ভারতের আদিরামাপাত্তিনামে পাঁচজন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ হায়দ্রাবাদের ভাল্লাপুর শরণার্থী শিবিরের কাছের একটি গ্রামে প্রার্থনার এক জায়গায় টাকা সংগ্রহ করছিলেন তারা।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার সহিংসতা ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রায় সাত লাখের মতো মানুষ। সেনাবাহিনীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে বিভিন্ন সময় ভারতেও আশ্রয় নিয়েছে অনেক রোহিঙ্গা। এখনও দেশটিতে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু জানায়, আটককৃত রোহিঙ্গাদের নাম সৈয়দ কাশিম, দিল মোহাম্মদ, মোহাম্মদ সেলিম, নূর আলম এবং জিয়াউল হক। পুলিশ জানায়, তারা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কাছ থেকে অবৈধভাবে তহবিল সংগ্রহ করছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছেন, তাদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় এই তহবিল সংগ্রহের ব্যাপারটি স্বীকার করেছেন তারা। আদিরামপাত্তিনাসে বিগত কয়েকদিনে ফিশারম্যান হ্যামলেটের এক উপাসনালয় থেকে এই তহবিল সংগ্রহ করেন তারা।

২০১৭ সালে ভারতে অবস্থানকারী সব রোহিঙ্গাকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। তবে বিষয়টি নিয়ে আদালতে রিট হলে মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের না তাড়ানোর রায় হয়।

ঘটনাপ্রবাহ: দ্যা হিন্দু, রাখাইন, রোহিঙ্গা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen − 6 =

আরও পড়ুন