নাইক্ষ্যংছড়ি পাহাড়ি এলাকায় ঘরবন্দী মুক্তিযোদ্ধাসহ অসহায়দের মাঝে আলীকদম জোনের ত্রাণ বিতরণ

fec-image

মানবিক সেবার অংশ হিসাবে বান্দরবন জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়ের হলুদ্যাশিয়া, দক্ষিণ বাইশারী, ধৈয়া বাপের মার্মা পাড়া, আলীমিয়া পাড়া এলাকায় করোনাভাইরাস নামক মহামারি থেকে পরিত্রাণের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ গরিব, অসহায় ও দুস্থ জনগোষ্ঠীদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে সেনাবাহিনীর আলীকদম জোন।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকাল ১০টার সময় হলুদ্যাশিয়া, দক্ষিণ বাইশারী, ধৈয়া বাপের মার্মা পাড়া, আলীমিয়া পাড়া এলাকায় গরিব, অসহায় ও দুস্থ জনগোষ্ঠীদের মাঝে এই ত্রাণ বিতরণ করেন আলীকদম জোনের ক্যাপ্টেন মো. মর্তুজার আলী নেতৃত্ব একদল সেনা সদস্যরা।

এসময় ক্যাপ্টেন মো. মর্তুজার আলী বলেন, আলীকদম জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মো:. সাঈফ শামীম, পিএসসির স্যারের দিক নির্দেশনায় করোনাভাইরাস রোধকল্পে অঘোষিত লকডাউনে থাকা অসহায়দের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী, মাস্ক, লিফটলেট বিতরণ করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, অতি জরুরি প্রয়োজন না হলে কাউকে বাইরে না আসার জন্য এবং সরকারি সকল বিধি নিষেধ মেনে চলার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করেন।

এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, বারবার সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং বাইরে গেলে মাস্ক ব্যবহারের প্রতি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা প্রদান করেন।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, আলীকদম জোনের আওতাধীন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় যে কোনো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে আর্ত-মানবতার সেবায় বেসামরিক প্রশাসনকে তাৎক্ষণিক সহায়তায় সার্বক্ষণিক পাশে থাকবে।

মুক্তিযোদ্ধা আলতাজ মিয়া ত্রাণ পেয়ে হাসিমুখে বলেন, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পার হলেও সরকারি কোন সুযোগ সুবিধা পাইনি। অন্যজনের গরু লালন পালন করে সংসার চালিয়ে যাচ্ছি। এই সর্বপ্রথম সেনাবাহিনী হতে ত্রাণ পেয়ে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জন্য প্রাণ খুলে দোয়া করি যাতে তারা দেশ ও জাতির সেবা করে যেতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, নাইক্ষ্যংছড়ি, সেনাবাহিনী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 4 =

আরও পড়ুন