উখিয়ার মরিচ্যায় চোরাই ও মরা গরু জবাই করে মাংস বিক্রি

fec-image

উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের মরিচ্যা বাজারে প্রতিনিয়ত অবৈধভাবে চোরাই করা এবং মরা গরুর মাংস বিক্রি করে আসছে এক শ্রেণীর অসাধু কসাই নামধারী সিন্ডিকেট। জবাইকৃত এসব গরুর বর্জ্য, নাড়ি, ভুড়ি গর্তে পুতে না রেখে লোকালয়ে ফেলে যাওয়ার কারণে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে গ্রামে গঞ্জে। এ ছাড়াও পেটে বাছুর থাকা গাভী জবাই করে বাছুর গুলো রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে মাংস বিক্রি করছে। এ নিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসি।

স্থানীয় লোকজনের অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, মরিচ্যা বাজারস্থ কসাই নামধারী এক শ্রেণীর অসাধু সিন্ডিকেট বিভিন্ন স্থান থেকে কম দামে পেটে বাছুর থাকা গাভী, মরা এবং চোরাই গরু জবাই করে বিক্রি করছে দীর্ঘদিন থেকে। ইতিপূর্বে একাধিকবার এ ধরনের মরা গরুর মাংস বিক্রির সময় উপজেলা প্রশাসন অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের জেল জরিমানা আদায় করেছিল। এরপর কিছুদিন বন্ধ থাকলেও সম্প্রতি আবারো ওই অসাধু চক্র তাদের অপকর্ম শুরু করে। এমনকি রাস্তার পাশে স্থানীয় লোকজনের বসত ভিটায় ও বাড়ীর আঙ্গিনায় মরা ও চোরাইকৃত গরুর নাড়ি, ভুড়ি, ঝোলাসহ পেটের বাছুর গর্ত না করে জনচলাচলের পথে ফেলে দিয়ে সামাজিক পরিবেশ নষ্ট করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের পূর্ব মরিচ্যা এলাকার মোজাফ্ফর আহমদ অভিযোগ করে জানান, তার এলাকার কসাই নামধারী সাহাব উদ্দিন প্রতিনিয়ত তার বাড়ীর আঙ্গিনায় চোরাই ও মরা গরু জবাই করে উচ্ছিষ্ট নাড়ি, ভুড়ি, ঝোলা ফেলে চলে যায়। পরে সেখান থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশ নষ্ট হয়ে উঠে। এমনকি বৃহস্পতিবার সকালে ৪টি গাভী জবাই করে তার বাড়ির সামনে  ফেলে দিয়েছে।  প্রত্যেক গাভীর পেটে বাছুর ছিল। বর্তমানে পূর্ব মরিচ্যা এলাকায় তার বাড়ির পাশে ৪টি মরা বাছুর পড়ে আছে। যে গুলো থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে।

এ নিয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, লিখিত অভিযোগটি পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা সাহাব উদ্দিনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উখিয়ার, চোরাই ও মরা গরু জবাই
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × four =

আরও পড়ুন