একই দিনে লক্ষ্মীপূজা, ঈদে মিলাদুন্নবী ও প্রবারণা পূর্ণিমা

fec-image

এবার সারা দেশে একইদিনে উদযাপিত হচ্ছে লক্ষ্মীপূজা, ঈদে মিলাদুন্নবী ও প্রবারণা পূর্ণিমা।ধর্মীয় ভাব-গাম্ভীর্যের ভেতর উৎসবগুলো পালনের মধ্য দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আরও জোরদার হওয়ার আশা সবার।

বুধবার (২০ অক্টোবর) এ বিশেষ দিনটিকে ঘিরে সকল ধর্মানুসারী ও ভক্তদের ভেতর কাজ করছে বিশেষ আনন্দ।

চলুন জেনে নেওয়া যাক বিশেষ এ দিনগুলোর তাৎপর্য:

ঈদে মিলাদুন্নবী:

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও মৃত্যুর দিন আজ ১২ রবিউল আউয়াল। বাংলাদেশে দিনটি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পরিচিত। সৌদি আরবের মক্কা নগরীর বিখ্যাত কুরাইশ বংশে ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দের এদিনে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ৬৩২ খ্রিষ্টাব্দের একই দিনে মৃত্যুবরণ করেন। প্রিয় নবীর জন্ম ও মৃত্যুর এ দিনটিকে ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা অত্যন্ত ভাব-গাম্ভীর্যের সঙ্গে পালন করে থাকে।

লক্ষ্মীপূজা:

ঐশ্বর্য, উন্নতি (আধ্যাত্মিক ও পার্থিব), আলো, জ্ঞান, সৌভাগ্য, দানশীলতা, সাহস, সৌন্দর্যের দেবী লক্ষ্মী। শারদীয় দুর্গোৎসব শেষ হওয়ার পরবর্তী পূর্ণিমা তিথিতে হিন্দু সম্প্রদায় লক্ষ্মীপূজা উদযাপন করে থাকে। সে হিসেবে আজ দেশব্যাপী পালিত হচ্ছে লক্ষ্মীপূজা।

প্রবারণা পূর্ণিমা:

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমা আজ। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমা আজ। এ পুণ্যময় পূর্ণিমা তিথিতে মহামানব তথাগত গৌতম বুদ্ধ তাবতিংস স্বর্গে মাতৃদেবীকে অভিধর্ম দেশনার পর ভারতের সাংকাশ্য নগরে অবতরণ করেন। সংস্কৃত ভাষা থেকে আগত এ শব্দটির পালি ভাষারূপ “পবারণা”। এর অর্থ হলো “প্রকৃষ্টরূপে বরণ করা”, “দোষত্রুটি স্বীকার” ইত্যাদি। ব্যাপক অর্থে প্রবারণা বলতে অসত্য ও অকুশল কর্মকে বর্জন করে সত্য ও কুশল কর্মকে বরণ করা। এর অপর নাম “আশ্বিনী পূর্ণিমা”। প্রবারণা পূর্ণিমা বৌদ্ধ ভিক্ষুদের বর্ষাব্রত পালনের সঙ্গে সম্পর্কিত হলেও এই পূর্ণিমা তিথি সব বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীর কাছে তাৎপর্যপূর্ণ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − four =

আরও পড়ুন