ওএসডি হচ্ছেন টেকনাফের সেই ইউএনও খসরু

fec-image

আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নিয়ে সংবাদ পরিবেশনকে কেন্দ্র করে প্রতিবেদককে ফোন করে গালিগালাজ করা টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কায়সার খসরুকে ওএসডি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৫ জুলাই) মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। এর আগে সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘সাংবাদিকের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করার কারণে টেকনাফের ইউএনওকে অবিলম্বে ওএসডি করা হবে। তার বিষয়টি এখন উচ্চ আদালতে বিচারাধীন। আদালত তার বিষয়ে যে নির্দেশ দেয় আমরা তা প্রতিপালন করবো।’

প্রজাতন্ত্রের একজন দায়ীত্বশীল কর্মকর্তার ভাষা এমন হতে পারে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এর মাধ্যমে প্রশাসন সম্পর্কে জনমনে ভুল ধারণা তৈরি হতে পারে। এটা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’

এর আগে গত ২১ জুলাই ‘নিচু জায়গায় নির্মাণ করা উপহারের ঘর পানিতে ভাসছে’ শিরোনামে অনলাইন নিউজপোর্টাল ঢাকা পোস্টে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ‘কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা হোয়াব্রাং এলাকার সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের সব নতুন ঘর পানিতে ভাসছে। ফলে সেখানে থাকা ২৭টি পরিবার চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।’

‘মুজিববর্ষ উপলক্ষে উপহারের ঘরগুলো এমন নিচু জায়গায় করা নিয়ে স্থানীয় লোকজন শুরু থেকেই আপত্তি তুলেছিলেন। তাদের অভিযোগ ছিল, ঘর তৈরিতে মাটির নিচে ইট ব্যবহার করা হয়নি। এ ছাড়া নিম্নমানের ইট, বালি-রড, কাঠ ও অন্যান্য সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। এজন্য তারা দায়ী করেন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকে।’

পরে ওই সংবাদ প্রকাশকে কেন্দ্র করে গত ২১ জুলাই রাতে ঢাকা পোস্টের কক্সবাজার প্রতিনিধি সাইদুল ফরহাদকে ফোনে গালিগালাজ করেন ইউএনও কায়সার খসরু।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ওএসডি, কায়সার খসরু, টেকনাফ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × two =

আরও পড়ুন