খাগড়াছড়িতে সহকর্মীকে গুলি করে হত্যা মামলায় আনসার সদস্যের মৃত্যুদন্ড

fec-image

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় সহকর্মী আনসারের নায়েক আমীর হোসেন(৬০) হত্যা মামলায় সাবেক আনসার সদস্য মো: রফিকুল
ইসলামকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আদালত।

বৃহষ্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে খাগড়াছড়ির জেলা ও দায়রা জজ রেজা মোঃ আলমীর হাসান এই রায় ঘোষণা করেন। প্রায় পাঁচ বছর পর মামলার রায় ঘোষণা করেছে আদালত। একই সাথে আসামিকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড দিয়েছে আদালত। তবে আসামি পলাতক রয়েছে।

২০১৫ সালের ৩রা জুলাই বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে দীঘিনালা উপজেলার কবাখালী হেডম্যান পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। হত্যাকারী রফিকুল ইসলাম একটি ৩০৩ রাইফেল ও ৮৪ রাউন্ড গুলি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরের দিন বিকাল পৌনে ৪টায় দীঘিনালা উপজেলার মনের মানুষ নামক স্থান থেকে সেনাবাহিনী অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে।

এ ঘটনার দিন নিহতের ছেলে ফরিদ উদ্দিন বাদী হয়ে দীঘিনালা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। পরবর্তী একই বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর পুলিশ রফিকুল ইসলামকে আসামি দেখিয়ে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলা চলাকালীন রাষ্ট্রপক্ষ মোট ১২জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য আদালতে উপস্থাপন করেন। উভয় পক্ষের যুক্তি তর্ক উপস্থাপন শেষে প্রায় পাঁচ বছর পর আদালত রায় ঘোষণা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − five =

আরও পড়ুন