খাগড়াছড়িতে মারমা স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের প্রতিবাদ

fec-image

হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ) খাগড়াছড়ি জেলা শাখার আহ্বায়ক এন্টি চাকমা রবিবার (৪ জুলাই) এক বিবৃতিতে খাগড়াছড়ি বাস টার্মিনালে মারমা এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও আটককৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, গত  শনিবার (৩ জুলাই) পারিবারিক সমস্যার কারণে এক মারমা স্কুল ছাত্রী গুগড়াছড়ি বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের বাস টার্মিনালে পৌঁছান। এসময় আনুমানিক ভোর ৪.০০ টার দিকে বাসে তুলে কয়েকজন মিলে তাকে গণধর্ষণ করে। পরে ধর্ষিতা থানায় গিয়ে বিষয়টা পুলিশকে জানালে ধর্ষক বাস হেল্পার মো. কামাল মিজি ও মো. রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।

কোভিড-১৯ অতিমারীর ফলে সারাদেশে কঠোর লকডাউন পরিস্থিতিতে প্রশাসন তৎপর থাকা সত্ত্বেও খাগড়াছড়ি বাস টার্মিনালে গণধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে ধর্ষণের ঘটনায় প্রশাসন ও বিচারে পক্ষপাতিত্বের কারণে অপরাধী গ্রেফতার হলেও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা হয় না, অপরাধীরা সহজে ছাড়া পেয়ে যায়।

উল্লেখ্য, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের প্রচেষ্টাকারী স্কুল শিক্ষক সোহেল রানাকে গ্রেফতার করা হলেও পরে তাকে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়েছে এবং অন্যান্য ধর্ষণধর্ষণের পরে হত্যার ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক কোন শাস্তি প্রদান করা হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 3 =

আরও পড়ুন