চকরিয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার-১

fec-image

বিয়ের মেহেদী হাতের রং শুকানোর আগেই কক্সবাজারের চকরিয়ায় জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে জায়গা দখলের খবরে বাধা দিতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের নির্মম পিটুনিতে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারিয়েছে পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক মো.সোহেল রানা (২৮)। এ ঘটনায় জড়িত একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোহেলের খুনের ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

রবিবার (২৯ নভেম্বর) রাত দেড়টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের ভরামুহুরীস্থ হাজিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোহেল রানা পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের পালাকাটা হাসেম মাষ্টার পাড়া এলাকার আবদুর রকিমের পুত্র।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের ৪ নভেম্বর সোহেলের সাথে বিয়ে হয় পেকুয়ার কৃষকলীগ নেতা মেহের আলীর কন্যা কলির সঙ্গে। জায়গায় জমির বিরোধে সন্ত্রাসী হামলায় বিয়ের ২৪ দিনের মাথায় স্বামী সোহেলকে হারাল নববিবাহিতা কলি।

প্রত্যক্ষর্দীরা জানায়, হামলার পর ঘটনাস্থলে পড়ে থাকা সোহেলকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে পুলিশ নিহত সোহেলের প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোহেল খুনের ঘটনার পর পরই হামলার ঘটনায় জড়িত আবদুল মান্নান (৩৪) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত মন্নান পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের ভরামুহুরীস্থ হাজিপাড়া এলাকার কবির আহমদের ছেলে।

নিহত সোহেলের বাবা আবদুর রকিম জানান, ভরামুহুরী হাজি পাড়ায় তাদের ক্রয়কৃত একটি জায়গা রয়েছে। সেই জায়গা দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালায় ভূমিদস্যু-সন্ত্রাসীরা। জায়গা দখলের খবর পেয়ে তার ছেলেসহ আরো কয়েকজন সেখানে ছুটে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে সোহেলকে একা পেয়ে হাজি পাড়ার জবরদখলকারী সন্ত্রাসীরা সোহেলকে পেছন থেকে হাতুড়ি, গাছের বাটাম দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর আহত করা হয়। এতেই ঘটনাস্থলেই পড়ে থাকে সোহেলের নিথর দেহ। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আশরাফ হোসেন জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনায় আরো যারা জড়িত রয়েছে তাদেরকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে মামলা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চকরিয়া, ছাত্রলীগ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =

আরও পড়ুন