টেকনাফে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

fec-image

নারী ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন একটি অভিশপ্ত কাজ। এটি সৎ মানুষের কাজ হতে পারে না। সরকার নারী , শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের আইন পাশ করে নারীর প্রতি যে সম্মান প্রদর্শন করেছেন।
পুলিশ, যুবসমাজ সবাই এক সাথে কাজ করলে টেকনাফে মাদক থাকবে না। মাদক ও ধর্ষণ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে থাকবে।

টেকনাফে নারী ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠানে বক্তারা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

শনিবার (১৭ অক্টোবর ) সকাল ১১টায় টেকনাফ মডেল থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাফিজুর  রহমানের সভাপতিত্বে “নিরাপদ দেশ গড়ি, নারী নির্যাতন বন্ধ করি”এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ( মহিলা) তাহেরা আকতার মিলি, টেকনাফ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও টেকনাফ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুরী।
অন্যন্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোলতান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুন্না, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সাংবাদিক মোঃ শাহীন।

সমাবেশে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, নারী ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন একটি অভিশপ্ত কাজ। এটি সৎ মানুষের কাজ হতে পারে না। সরকার নারী , শিশু নির্যাতন ও ধর্ষনের শাস্তি মৃত্যুদন্ডের আইন পাশ করে নারীর প্রতি যে সম্মান প্রদর্শন করেছেন, তার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানায়।

সভাপতি টেকনাফ মডেল থানার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান বলেন- টেকনাফ একটি পরিচিত নাম। পুলিশ, যুবসমাজ সবাই এক সাথে কাজ করলে টেকনাফে মাদক থাকবে না। মাদক ও ধর্ষন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ, নির্যাতন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 4 =

আরও পড়ুন