টেকনাফ উপজেলা বিএনপির প্রতিনিধি সভা ও ঈদ পূর্ণমিলন অনুষ্ঠিত

fec-image

শনিবার (৭ মে) সকাল ১১টায় বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে টেকনাফ উপজেলা বিএনপির প্রতিনিধি সভা ও ঈদ পূর্ণমিলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এড. হাসান ছিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভা ও ঈদ পূর্ণমিলনীতে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি ও উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সাংসদ শাহজাহান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন টেকনাফ পৌরসভার সভাপতি আবদুর রাজ্জাক মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন বাবলু, সিনিয়র সহসভাপতি মোহাম্মদ হাসেম সিআইপি, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. সেলিমুল মোস্তাফা, যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ আলী মেম্বার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে শাহজাহান চৌধুরী বলেন, সন্ত্রাস দমনের নামে বিএনপির নেতাকর্মীদের খুন, গুম, মামলা-হামলা করে জেলে বন্দী করে রেখেছে। আন্তর্জাতিকভাবে হাসিনা সরকারের চাহিদা কমে যাচ্ছে। অতি শিগগিরই দুর্বার আন্দোলনে উড়ে যাবে হাসিনা সরকার।

ওই আন্দোলনে যারা অংশ গ্রহণ করবে না তারা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পদ থেকে বাদ যাবে। কোনভাবেই এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবেনা বিএনপি। যারা অংশগ্রহণ করবে তারা জাতীয়ভাবে মুনাফিক।

বিএনপির ৬ লক্ষাধিক নেতাকর্মীকে জেলে আটকে রেখেছ, তাদের মুক্ত করতে হবে। বিএনপিতে কোন ব্যক্তি বাহিনী নেই। আছে শহীদ জিয়ার আদর্শের বাহিনী। তাই সামান্য মনোমালিন্যে কারো সম্মানহানী করে ফেসবুকে দিয়ে প্রচার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। দলে ঘাপটি মেরে থাকা কুচক্রীমহল সাবধান হন। দলের উন্নতি হয়, সেই ধরনের প্রচারণা ফেসবুক ব্যবহার করুন।

তিনি আরো বলেন, তেলের দাম বেড়েছে, চাল ৭০ টাকা, এমনকি লুঙ্গির দামও বেড়েছে। সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বাইরে চলে গেছে বাজার দর। ব্যাংক লুট হচ্ছে। বিদেশে পাচার করা হচ্ছে কোটি কোটি টাকা। সরকার ইসলামকে জঙ্গি আখ্যায়িত করে যাচ্ছে। ইসলাম নিয়ে চেতনা আসতে হবে।

সাংগঠনিক বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপির নেতৃত্বে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অনৈতিক উপায়ে কমিটি দেওয়া হলে সঠিক তথ্য দিন। সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নূন্যতম ছাড় দেওয়া হবেনা। যারা দুই ব্যানার ব্যবহার করে সভা সমাবেশ করবে তাদের ২৪ ঘন্টায় বহিষ্কার হবে।

এতে টেকনাফ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের সভাপতি-সম্পাদক, ওয়ার্ড বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। বক্তারা সংগঠনের বিভিন্ন অনিয়ম ও সাংগঠনিক বিষয় তুলে ধরেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা, টেকনাফ, পূর্ণমিলন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 4 =

আরও পড়ুন