নাইক্ষ্যংছড়িকে মাদকমুক্ত করার ঘোষনা দিলেন ওসি আলমগীর

fec-image

বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়িকে মাদক মুক্ত করা হবে বলে ঘোষণা করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানা’র চৌকস অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন।

বাংলাদেশ সরকার ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে দেশকে মাদক মুক্ত দেশ ঘোষণা করতে যাহা কিছু প্রয়োজন হয় সব প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

জানা যায়, নবাগত ওসি যোগদানের পর পরই ইতিমধ্যে নাইক্ষ্যংছড়িতে ৭টিরও বেশি মাদক মামলা এবং বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে ২৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ ডিসেম্বরে মাদক মুক্ত দেশ ঘোষণা করার জন্য নির্দেশের অংশ হিসেবে নাইক্ষ্যংছড়িতেও যা প্রয়োজন সব কিছু গ্রহণ করেছে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা’র পুলিশ।

ওসি বলেন বাংলাদেশকে মাদক মুক্ত করতে যে ঘোষণা এসেছে। ঘোষণার বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশে সবখানে মাদক বিরোধী অভিযান চালু হয়েছে। তা বাস্তবায়ন করতে নাইক্ষ্যংছড়ি সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ জুন ২০২০ নবাগত অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন ওসি হিসেবে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় যোগদান করার পর পরই মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন।

যোগদানের পর থেকে নাইক্ষ্যংছড়িতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে ২৯ দিনে ২৩ জনকে কারাগারে পাঠাতে সক্ষম হয়েছে।

নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরও জানান, মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে মাদক মুক্ত দেশ গঠনের সরকারের যে ঘোষণা রয়েছে নাইক্ষ্যংছড়িতেও তা বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানান।

ওসি বলেন, বান্দরবান জেলা পুলিশ সুপার ও সহকারী পুলিশ সুপারের নির্দেশে নাইক্ষ্যংছড়িকে বাসযোগ্য নিরাপদ মডেল নাইক্ষ্যংছড়ি থানা রুপান্তরে নানাধরণের কর্ম পরিকল্পনাসহ মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স বাস্তবায়নে যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

থানা’র ওসি( তদন্ত) কানো চৌধুরী জানান, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় প্রতিটি ওয়ার্ড ভিত্তিক মাদক ব্যবসায়ী এবং সন্ত্রাসীদের তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। তালিকা অনুসারে নবাগত ওসির নির্দেশে তাদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যহত থাকবে।

উল্লেখ্য, সদ্য যোগদানকৃত নাইক্ষ্যংছড়ি থানা’র অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আলমগীর নাইক্ষ্যংছড়িতে যোগদানের পর থেকে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। পাশাপাশি তিনি এলাকার সকলের সহযোগিতা চান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 3 =

আরও পড়ুন