পরকীয়ার জেরে প্রবাস ফেরত স্বামীকে হত্যার অভিযোগে খাগড়াছড়িতে স্ত্রীসহ ৫জনের ফাঁসি

fec-image

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় খাগড়াছড়ির গুইমারায় প্রবাস ফেরত স্বামী মমিনুল হককে ভাড়াটিয়া খুনি দিয়ে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী রাবেয়া বেগমসহ ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেছে আদালত। বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হাসানের আদালত এ রায় দেন। একই সাথে আদালত প্রত্যেক আসামিকে পাঁচ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছে।

সাজাপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন, রামগড় চৌধুরী পাড়ার মোঃ মানিক মিয়ার ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম(২৪), একই এলাকার মৃত আব্দুল মালেক এর ছেলে মোঃ ফিরোজ(২৮), গুইমারা উপজেলার রেনুছড়া এলাকার শাহ আলমের ছেলে মোঃ আবুল কালাম(২২) এবং একই এলাকার আবুল হোসেন এর ছেলে মোঃ আবুল আসাদ ওরফে মিঠু(২০)। দন্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে আবুল আসাদ ওরফে মিঠু ছাড়া অন্য আসামিরা খাগড়াছড়ি জেলা কারাগারে রয়েছে।

খাগড়াছড়ির পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রবাসী মমিনুল হকের স্ত্রী রাবেয়া বেগম পরকিয়ার জেরে স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করে। ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে ভাড়াটিয়া খুনী দিয়ে স্বামী মমিনুল হককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে জঙ্গলে মরদেহ রেখে পালিয়ে যায়। ২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় স্থানীয়রা মরদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত করে ৫ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশিট প্রদান করে। এ মামলায় ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করে আদালত।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে খাগড়াছড়ির পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত দণ্ডবিধি ৩০২/৩৪ ধারায় প্রত্যেক আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × five =

আরও পড়ুন