পেরুতে পাহাড়ি রাস্তা থেকে ছিটকে পড়ল বাস, নিহত অন্তত ১৬

fec-image

লাতিন আমেরিকার দেশ পেরুতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৬ জন নিহত হয়েছেন। দেশটিতে পাহাড়ি অঞ্চল দিয়ে যাওয়ার সময় যাত্রীবাহী একটি বাস নিচে ছিটকে পড়লে প্রাণহানির এই ঘটনা ঘটে।

পেরুতে অবশ্য এই ধরনের বাস দুর্ঘটনা বিরল কোনও বিষয় নয়। বার্তাসংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে বুধবার (১৫ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার পেরুতে পাহাড়ি আয়াকুচো অঞ্চলে ভ্রমণের সময় একটি বাস নিচে ছিটকে পড়ার পর অন্তত ১৬ জন নিহত হয়েছেন বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। বাসটি আন্দিজের ওপর দিয়ে ভ্রমণের সময় ৪০ জনেরও বেশি যাত্রী বহন করছিল, যেখানে এই ধরনের ট্র্যাজেডি অস্বাভাবিক কিছু নয়।

আয়াকুচোর কর্মকর্তা ওয়াইবার ভেগা সাংবাদিকদের বলেছেন, ১৩ জনের মৃতদেহ ইতোমধ্যেই উদ্ধার করা হয়েছে এবং আরও তিনজনকে বাসের নিচ থেকে উদ্ধার করা বাকি রয়েছে। দুর্ঘটনায় মোট ১৬ জন নিহত হয়েছেন।

এএফপি বলছে, দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি লিবার্তাদোরস হাইওয়ের আঁকাবাঁকা রাস্তা দিয়ে লিমা থেকে আয়াকুচো শহরে যাচ্ছিল বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে। একপর্যায়ে বাসটি উল্টে একটি ঢালে গড়িয়ে পড়ে।

পেরুতে বাস দুর্ঘটনা খুবই সাধারণ বিষয়। বিশেষ করে রাতে এবং পাহাড়ের হাইওয়েতে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। এছাড়া দ্রুত গতি, রাস্তার খারাপ অবস্থা, রোড সাইনের অভাব এবং ট্রাফিক নিয়ম-কানুনের দুর্বল প্রয়োগের কারণে পেরুর রাস্তায় প্রায়ই এই ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।

এর আগে গত ৩০ এপ্রিল লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে পাহাড়ি রাস্তা থেকে ৬৫০ ফুট খাদে পড়ে যায় একটি বাস। এতে সেসময় নিহত হন ২৫ জন। সেই ঘটনায় আহত হন আরও বহু মানুষ।

গত বছর দেশটিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩১৩৮ জনেরও বেশি প্রাণহানির তথ্য নিবন্ধিত করা হয়েছে। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ৭০ শতাংশ দুর্ঘটনা চালকের অক্ষমতা বা ক্লান্তির মতো কারণে হয়ে থাকে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: সড়ক দুর্ঘটনা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন