বাংলাদেশ গেমস্ ‘কারাতে প্রতিযোগিতা’ হবে বান্দরবানে

fec-image

অলিম্পিক গেমস এর আদলে দেশের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর ‘বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস্’ এর কারাতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পার্বত্য জেলা বান্দরবানে। ১ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন শহরে অনুষ্ঠিত হবে এই আসরটি। এর মধ্যে ৬ থেকে ৮ এপ্রিল কারাতে প্রতিযোগিতায় ৪০টি টিম অংশ নিবে বান্দরবান জেলা পরিষদ কমিউনিটি হলে।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ হল রুমে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা মারমা

এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, করোনার প্রভাবের কারণে এই আসরটি ঘিরে নানা প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন। বিশেষ করে খেলার ডিসিপ্লিন, গেমসের আবাসন, ভেন্যু, চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্যবিধির উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। যার কারণে কোচ-খেলোয়াড়, কর্মকর্তা, কর্মচারী, সাংবাদিক, স্বেচ্ছাসেবক এবং প্রশাসনের কেউই ৭২ ঘন্টা পূর্বে করা করোনা টেস্ট রিপোর্ট ছাড়া আসরে প্রবেশ করতে পারবে না। এই প্রতিযোগিতা সাফল্যময় করতে সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা চান তিনি।

এসময় বান্দরবান জেলা সিভিল সার্জন অংশৈ প্রু জানান, করোনার বর্তমান পরিস্থিতিরি কারণে আসরটিকে একটু ভিন্নভাবে পালন করতে হবে। কোন একজনের জন্য যেনো এই আসর বন্ধ না হয় তা খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি আরও জানান, প্রতিযোগিতায় উপস্থিত ও অংশগ্রহণের জন্য ইতিমধ্যে জেলা পরিষদ থেকে ১৭জন, স্বেচ্ছাসেবক ১২জন, শিল্পীগোষ্ঠীর ২৬জন সহ ৮জন খেলোয়াড় ইতোমধ্যে করোনা টেস্টের জন্য নাম জমা দিয়েছেন। বাকীদেরও আগামী ৩ এপ্রিলের মধ্যে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

জানা গেছে, ৬ এপ্রিল বান্দরবানে অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশ গেমস্ এর কারাতে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। এছাড়াও প্রতিযোগিতায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন এর সভাপতি ড. মো. মোজাম্মেল হক খান, চট্টগ্রাম সিটি মেয়র এম রেজাউল করিমসহ বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের স্টিয়ারিং কমিটির নেতৃবর্গ উপস্থিত থাকবেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ অলিম্পিক নামে এই গেমস প্রথম আয়োজিত হয়েছিল ১৯৭৮ সালে। সর্বশেষ ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত হয়েছিল অষ্টম বাংলাদেশ গেম।

এদিকে ১ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস্ এর আয়োজনে মশাল নিয়ে গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকার পথে অংশ নেন বান্দরবানের মেয়ে ও এসএ গেমসে সোনা জয়ী কারাতে খেলোয়াড় জ উ প্রু মারমা ও ইতি ইসলাম উশু।

এই প্রসঙ্গে জ উ প্রু সাংবাদিকদের বলেন, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ গেমসের মশাল বহন করতে পারায় আমি গর্বিত, খুবই ভাল লাগছে। আমাকে এ সুযোগ করে দেয়ায় সংশ্লিষ্ট সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কারাতে প্রতিযোগিতা, বান্দরবান, বাংলাদেশ গেমস্
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 1 =

আরও পড়ুন