বাঘাইছড়িতে আধাবেলা হরতাল পালিত

fec-image

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের নেতা রুপায়ন চাকমাকে আটকের প্রতিবাদে আধাবেলা হরতাল পালন করেছে প্রসীত গ্রুপের ইউপিডিএফ সমর্থিত পিসিপি। বুধবার (১৬ জুন) সকালে থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ইউপিডিএফ নিয়ন্ত্রিত এলাকায় এ হরতাল পালন করা হয়।

হরতাল চলাকালে উপজেলার পথে ৯ কিলো নামক স্থানে ন্যাশন্যাল এগ্রিকেয়ার এগ্রো. কোম্পানির দুই প্রতিনিধিকে মারধর ও তাদের মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়।

বুধবার সকাল থেকেই উপজেলার মারিশ্যা সড়ক থেকে খাগড়াছড়ির দীঘিনাল উপজেলা সড়কে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কর্মীরা অবস্থান নেয়। সড়ক যোগাযোগ বন্ধ করতে তারা বেশকিছু বেইলি ব্রিজের পাটাতন খুলে ফেলে এবং নেতার মুক্তির দাবিতে মিছিল করে।

বাঘাইছড়ি থেকে সকল প্রকার দূরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ থাকলেও উপজেলার পৌর শহরে হরতালের কোন প্রভাব পড়েনি। দোকান-পাট খোলা ছিলো। শহরের যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিলো। নৌ পথে যোগাযোগ ছিলো স্বাভাবিক।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন খান বলেন, বাঘাইছড়ি উপজেলা শহরে হরতালের কোন প্রভাব পড়েনি। পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি বিজিবি’র টহলও ছিলো।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি উপজেলা পরিষদে ঢুকে ইউপি সদস্য সমর বিজয় চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে দুই সন্ত্রাসী। পরে এই ঘটনায় জেএসএস (সন্তু) দলের ১০ সদস্য ও অজ্ঞাত ৮ জনের কথা উল্লেখ করে নিহত সমরের ভাই বিনয় চাকমা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা সাজেক ইউনিয়নের পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি রুপায়ন চাকমাকে বাঘাইছড়িতে পিআইও অফিসে আকাশ ও দিবালোকে ইউপি মেম্বার সমর বিজয় চাকমা হত্যা মামলার আসামি হিসেবে মঙ্গলবার উপজেলার মাচালং বাজার থেকে গ্রেপ্তার করে।

এদিকে আটক রূপায়ন চাকমাকে নির্দোষ দাবি করে তার মুক্তির দাবিতে সাজেক ইউনিয়নের পিসিপি সদস্য এল্টু চাকমা ও কালোবরন চাকমার স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আধাবেলা হরতালের ঘোষণা দেয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − five =

আরও পড়ুন