বাঙ্গালহালিয়ায় বখাটের প্ররোচনায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের

fec-image

বখাটে কর্তৃক অপবাদের কারণে পূর্ব নির্ধারিত বিয়ে ভেঙ্গে যাওয়ায় অপমান সইতে না পেরে বিষপানে কলেজ শিক্ষার্থী শামীমা আত্মহত্যার ঘটনায় চন্দ্রঘোনা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে নিহত শামীমার পিতা সাহেব আলী বাদি হয়ে চন্দ্রঘোনা থানায় এই মামলাটি দায়ের করেন।

চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে বখাটে রানাকে পেনাল কোড ৩০৬ ধারায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-১, তারিখ ৫/১১/২০১৯ইং।

মামলার এজাহারে নিহত শামীমার পিতা উল্লেখ করেছেন, শামীমাকে বিভিন্ন সময় প্রেম নিবেদনের পাশাপাশি কুপ্রস্তাব দিতো বখাটে রানা। চন্দ্রঘোনার সে ডাকবাংলা বিহার পাড়া এলাকার বাসিন্দা শহিদ ও রহিমা বেগমের সন্তান। দীর্ঘদিন ধরেই রানা শামীমাকে উত্যক্ত করে আসছিলো। এক পর্যায়ে প্রবাসী ফুপাতো ভাইয়ের সাথে শামীমার বিয়ে ঠিক হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রানা শামীমার হবু বরের নিকট নানা ধরনের নোংরা কথাবার্তা বলে বিয়েটি ভেঙ্গে দেয়। এতে করে শামীমা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে এবং বিষপানে আত্মহত্যা করে। রানা কর্তৃক আত্মহত্যার প্ররোচনার ফলেই তার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করেছেন বাদী সাহেব আলী।

বখাটে রানার হয়রানীতে অতিষ্ট হয়ে রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী শামীমা আক্তার(১৮)। এদিকে নির্মম এই ঘটনার পর বখাটে রানাকে গ্রেফতারের দাবিতে বাঙ্গালহালিয়ায় স্থানীয়দের বিক্ষোভ অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

আরও পড়ুন