বাচাল সহকর্মীকে নিয়ন্ত্রণ করার উপায়

fec-image

কাজে ব্যস্ত। অথচ সহকর্মীর কথা থামছেই না। রয়েছে সবিনয়ে এড়িয়ে যাওয়ার উপায়। কাজের ফাঁকে টুকটাক গল্প গুজব একঘেয়ামি দূর করে। তাই বলে বাচাল সহকর্মীর পাল্লায় পড়ে সারাক্ষণ গল্প করলে কাজে ভুল হওয়া ও গতি ধীর হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

সম্পর্ক-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে কর্মস্থলে বাচাল সহকর্মীর সঙ্গে সৌজন্য বজায় রেখে তাকে এড়িয়ে যাওয়ার উপায় সম্পর্কে জানানো হল।

‘আই কন্টাক্ট’ বা চোখাচোখি এড়িয়ে চলুন: কারও সঙ্গে কথা বলার সময় দৃষ্টি সংযোগ করা জরুরি। বক্তার সঙ্গে কথা বলার সময় মুচকি হাসি, দৃষ্টি সংযোগ বা দেহ ভঙ্গি কথা প্রসারিত হতে সহায়তা করে। তবে যদি কারও সঙ্গে কাজের সময় আলাপ আলোচনা এড়াতে চান তাহলে তার সঙ্গে এই ধরনের সৌজন্যমূলক আচরণ থেকে বিরত থাকুন।

বরং, কাজের সময় সহকর্মী অকারণে কথা বলতে আসলে তার চোখের দিকে না তাকিয়ে বরং কম্পিউটারে মনিটরের দিকে তাকিয়ের কথা বলুন এবং তাকে বোঝানোর চেষ্টা করুন যে, আপনার কাজ আছে, আপনি খানিকটা ব্যস্ত।

অস্বস্তি প্রকাশ: অনেকেই আছেন নিজের স্বস্তি বা অস্বস্তির কথা মুখ ফুটে বলতে পারেন। অনেকেই আবার এই কাজটা ঠিক মতো করতে পারেন না। ফলে নানান ধরনের সমস্যায় পড়েন।

কাজের প্রয়োজনে সরাসরি কথা বলতে না পারলে ‘আমি’ শব্দের পরিবর্তে ‘আমার’ শব্দটা ব্যবহার করতে পারে। এতে নিজের কাছে অস্বস্তি কম হবে। আবার কাজের কাজও হবে। যেমন- ‘আমি এখন কথা বলতে পারছিনা, হাতে কাজ আছে পরে কথা বলি’ এটা না বলে বলতে পারেন, ‘আমার হাতে একটু কাজ আছে এটা শেষ করে আপনার সঙ্গে কথা বলছি’।

নিজের পছন্দ অপছন্দকে প্রাধান্য দিন: কথা বলার বিষয় নির্বাচনের ক্ষেত্রে সবারই নিজস্ব মতামত আছে। অর্থাৎ আপনি কী বিষয়ে কথা বলতে চান বা চান না সেটা আপনার ওপরে নির্ভর করে।

পছন্দসই বিষয়ে আলোচনা হলে তাতে অংশগ্রহণ করুন। আর অপছন্দ হলে তা এড়িয়ে যান। নিজের পছন্দ অপছন্দের ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা মেনে চলুন।

বিকল্প বিষয় উপস্থাপন করুন: যদি কাজের সময় বাচাল সহকর্মী থেকে দূরে থাকতে চান তাহলে তাদেরকে নিজের কাজের ব্যস্ততা দেখান এবং বলুন যে, আপনি অবসরে তাদের সঙ্গে সময় কাটাবেন।

এটা কেবল মুখে বললেই হবে না, সত্যি অবসরে তাদের সঙ্গে সময় কাটান ও গল্প করুন। এতে তারা আপনার কাজের ও কথার গুরুত্ব বুঝবে এবং কাজের ফাঁকে আপনাদের সম্পর্কও দৃঢ় হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − 5 =

আরও পড়ুন