বান্দরবানে ফসলের লাভজনক শস্য ব্যবস্থাপনায় প্রশিক্ষণ

fec-image

বান্দরবানে চর, উত্তরাঞ্চল ও পাহাড়ী এলাকার ফসলের লাভজনক শস্য ব্যবস্থাপনা প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং শস্য নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে বান্দরবান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও খাগড়াছড়ি উপকেন্দ্রের আয়োজনে বান্দরবানের হর্টিকালচার সেন্টারের সভাকক্ষে দিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।

বান্দরবান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবদি ড. এ কে এম নাজমুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিক ড. মো আবদুর রৌফ।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রাঙ্গামাটি অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মো ফজলুর রহমান,খাগড়াছড়ি পাহাড়ী কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুন্সী রাশীদ আহমদ, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) মংমনসিংহ এর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও কর্মসূচী পরিচালক ড. মো. শহীদুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ পবন কুমার চাকমাসহ বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগাড়াছড়ি জেলার কৃষি কর্মকর্তারা।

দিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণে পাহাড়ী এলাকার ফসলের লাভজনক শস্য ব্যবস্থাপনা প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং শস্য নিবিড়তা বৃদ্ধি সর্ম্পকে বিভিন্ন ধারণা দেন আয়োজকেরা।

এসময় প্রশিক্ষণ কর্মসূচীতে বক্তারা বলেন, পার্বত্য এলাকার মাটি কৃষি কাজের জন্য বেশ উর্বর হওয়ার কারণে এখানে যেকোন ফসল দ্রুত জন্মায়, পাশাপাশি কৃষকরা পার্বত্য জেলায় বিভিন্নস্থানে ফসল ফলনের মাধ্যমে তাদের জীবন জীবিকার সাথে দেশের অর্থনীতিতে ও বড় অবদান রাখতে সক্ষম হচ্ছে।

বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) জানায়, এই পর্যন্ত ১৮টি ফসলের ১০৮টি জাত উদ্ভাবন করা হয়েছে এবং ৮টি ফসলের জন্য জীবাণুসার উদ্ভাবন করা হয়েছে যা দামে সাশ্রয়ী এবং নাইট্রোজেন সারের পরিবর্তে ব্যবহার করা হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + seventeen =

আরও পড়ুন