বান্দরবান ছাত্রদলের ১৩ ইউনিটের কমিটি ঘোষণা

fec-image

বান্দরবানে একই দিনে ছাত্রদলের আওতাধীন ১৩টি ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার (৪ডিসেম্বর) বান্দরবান জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. আশরাফুল আমিন ফরহাদ ও সাধারণ সম্পাদক অমিত ভুষণ তঞ্ছঙ্গ্যা কমিটিগুলো অনুমোদন দিয়েছেন । ঘোষিত কমিটিগুলোর মধ্যে ৭টি উপজেলা, ৩টি কলেজ, ২ পৌর শাখা ও ১ সাংগঠনিক শাখা রয়েছে।

অনুমোদিত কমিটিগুলো হলো-বান্দরবান সদর উপজেলা, বান্দরবান পৌর শাখা, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা, লামা উপজেলা, আলীকদম উপজেলা, রুমা উপজেলা, রোয়াংছড়ি উপজেলা, থানচি উপজেলা, লামা পৌর শাখা ও আজিজনগর সাংগঠনিক শাখা। এছাড়াও বান্দরবান সরকারি কলেজ, নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম সরকারি ডিগ্রি কলেজ এবং লামা মাতামুহুরী ডিগ্রি কলেজ রয়েছে ঘোষিত কমিটিতে।

২১ সদস্য বিশিষ্ট বান্দরবান সরকারি কলেজ কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে উচিংমং মারমা ও সদস্য সচিব আনোয়ারুল ইসলাম মামুনকে। নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম সরকারি ডিগ্রি কলেজে আহ্বায়ক মো. শামীম ইকবাল ও সদস্য সচিব মো. মনজুর। মাতামুহুরী ডিগ্রি কলেজে আহ্বায়ক শাহাদাত হোসেন ও নাজিম উদ্দিন জনি সদস্য সচিব। বান্দরবান সদর উপজেলায় আহ্বায়ক উবাচিং মারমা ও সদস্য সচিব শেফায়েত হোসেন তারেক। বান্দরবান পৌরসভায় আহ্বায়ক মিথুন কান্তি দাস এবং সদস্য সচিব কাউছার ইসলাম। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় আহ্বায়ক জিয়াবুল হক ও সদস্য সচিব মামুনুর রশিদ। লামা উপজেলায় মনিরুল ইসলাম তুহিন আহ্বায়ক ও মো. ইয়াসিন আরাফাত বুলবুল সদস্য সচিব। আলীকদম উপজেলায় আহ্বায়ক নুরুল সাফা ভুইয়া বাবু ও সদস্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন টিপু, রুমা উপজেলায় সিংমং হ্লা মারমা উমং আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব রোয়াল জাখুম বম। লামা পৌর শাখায় আব্দুল্লাহ আল নোমান আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব মো. গোলাম সরোয়ার। রোয়াংছড়ি উপজেলায় উত্তম তংঞ্চঙ্গ্যা আহ্বায়ক ও মংকা মারমা সদস্য সচিব। থানচি উপজেলায় তুইয়া ম্রো আহ্বায়ক ও হেরি ত্রিপুরা সদস্য সচিব। আজিজনগর সাংগঠনিক শাখায় মো. মোবারক হোসেন আহ্বায়ক ও আনোয়ারুল হক মাসুম সদস্য সচিব।

 

ঘোষিত কমিটিগুলোকে আগামী দুই মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে জেলা ছাত্রদল বরাবর প্রেরণের নির্দেশণা দিয়েছে জেলা কমিটি।

এই প্রসঙ্গে জেলা ছাত্রদল সভাপতি আশরাফুল আমিন ফরহাদ জানান, জেলা ছাত্রদলের আওতাধীন বান্দরবানে মোট ১৩টি ইউনিট রয়েছে। এর মধ্যে সবকটি পুরোনো ও মেয়াদোত্তীর্ণ ছিল। এই অবস্থায় ইউনিটগুলোর নেতা-কর্মীদের মধ্যে গতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে দীর্ঘদিন ধরে কমিটি পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া চলছিল। এর অংশ হিসেবে একসঙ্গে ১৩টি ইউনিটের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন কমিটির মাধ্যমে দলে গতিশীলতা আসবে এমনটি প্রত্যাশা জেলা ছাত্রদলের শীর্ষ এই নেতার।

এদিকে ঘোষিত কমিটি প্রসঙ্গে কয়েকটি এলাকায় পদ-পদবী নিয়ে চাপা ক্ষোভ থাকলেও। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ইউনিট নেতাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন নিজ দলের সহযোদ্ধারা। নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখায়নি কোন নেতাকর্মী। যার কারণে এমন সহাবস্থান আগামীর নেতৃত্ব তৈরীতে সহায়ক হবে বলে মনে করেছেন জেলা নেতারা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − 15 =

আরও পড়ুন