বৈসাবিতে বিঝু ফুলের কদর

fec-image

বৈসাবির প্রথম দিনটিই ফুল বিঝু। বিঝু ফুলের বার্তা লগ্নেই শুরু হয় পাহাড়ের সবচেয়ে বড় ঐতিহ্যবাহী বৈসাবি উৎসব পালনের প্রস্তুতি। এই সময় বিঝু ফুলের প্রচুর কদর। পাহাড়ি সম্প্রদায়ের বাড়ির দরজা নান্দনিক সাজে সাজানো হয় বিঝু ফুলের মালা দিয়ে। তাই ফুল বিঝুর দিন সাত সকালেই জঙ্গল থেকে ফুল তুলে মালা গেঁথে ঝুলানো হয় বাড়ির মূল দরজায়।

বিঝু ফুলের সাথে নানান প্রকার ফুল মিশিয়ে কলা পাতায় নিয়ে বালুর স্তুপে রেখে প্রার্থনায় বসে পাহাড়িরা। পানছড়ির রাবার ড্যাম এলাকায় প্রার্থনার দৃশ্য দেখতে জমে হাজারো মানুষের মিলনমেলা। বৈসাবির আগমনী বার্তা লগ্নেই পাহাড়ে বিভিন্ন এলাকার জঙ্গলে উঁকি দেয় বিঝু ফুল। সবুজ পাতার বুক চিরে সাদা থোকায় থোকায় ফোটে থাকা এটি দেখতেও নজরকাড়া।

এই ফুল পাহাড়ে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের কাছে ভিন্ন নামে পরিচিত। চাকমায় “ভাতঝড়া ফুল” “ত্রিপুরায় বৈসু খুম” “মারমায় সাংগ্রাই পাইং” “সাঁওতালরা পাতাবাহা” আবার কেউ কেউ “ভিউ ফুল” নামেও চিনে থাকে।

পানছড়ি সরকারি ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক ত্রিরতন চাকমা জানান, সেগুন বাগানের আশপাশ এলাকায় বিজু ফুল গাছ হয় না। তবে পাহাড়ে বৃক্ষশূন্যতার কারণে বিঝু ফুল প্রায় বিলুপ্তির পথে। বন উজাড়ের পাশাপাশি গাছের মূলসহ উপড়ে ফেলার কারণে দিন দিন তা কমে যাচ্ছে। হয়তো আগামী প্রজন্ম এই ফুলের কদরের কথা জানবেও না। পাহাড়ে বৈসাবির ঐতিহ্য আর সংস্কৃতি ধরে রাখতে এর সংরক্ষণ অতীব জরুরী বলেও তিনি জানালেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 + 2 =

আরও পড়ুন