মানিকছড়িতে টিকা সংকটে মাঝপথে থমকে গেল শিক্ষার্থীর টিকাদান!

fec-image

মানিকছড়ি উপজেলার ১৫টি মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজে অধ্যয়নরত ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকা দান কার্যক্রম মাঝ পথে থমকে গেল। পর্যাপ্ত টিকা না থাকায় এবং শিক্ষার্থীরা সাগ্রহে অংশ নেওয়ায় এক দিন আগেই টিকা শেষ হওয়ায় আপাতত বন্ধ রাখতে হচ্ছে টিকা কার্যক্রম।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রতন খীসা  জানান, উপজেলার ১৩টি মাধ্যমিক স্কুল- মাদরাসা ও ২টি কলেজের ১২ থেকে ১৮ বয়সী সকল শিক্ষার্থীকে করোনার টিকা (পাইজার) প্রদান কার্যক্রম ১০ থেকে ১২ জানুয়ারি নির্ধারণ করে উপজেলা পরিষদের আইসিটি কার্যালয়ের শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে টিকা দেওয়া কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী প্রায় সাড়ে ৩ হাজার শিক্ষার্থী প্রথম ধাপে টিকা নিতে পারবে। গত দুই দিনে ৩ হাজার ৩’শ শিক্ষার্থী টিকা গ্রহণ করেছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারীদের পাশাপাশি যুব রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবীরা টিকা কার্যক্রমে সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়েছে।

স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রতন খীসা জানান, করোনার টিকার প্রথমার্ধে মানুষজন টিকা গ্রহণে অনিহা ও ভয়ে থাকলেও এখন শিশু- কিশোরেরাও সাগ্রহে টিকা নিতে ছুঁটে আসছে। ফলে ঘোষিত তারিখের আগেই মঙ্গলবার বিকেল ৩টার পর পরই প্রাপ্ত টিকা শেষ হয়। টিকাদান না পাওয়া পর্যন্ত কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তিনি আরও জানান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে দেওয়া চাহিদার বাহিরেও শিক্ষার্থী আসায় এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। পর্যাপ্ত টিকা চাওয়া হয়েছে। আশা করি পরবর্তীতে সংকট হবে না।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × two =

আরও পড়ুন