রাঙামাটিতে মাদ্রাসা শিক্ষকের হাতে শিশু নির্যাতন

fec-image

রাঙামাটি শহরে অহনা মাহি (০৮) নামের এক শিশুকে মারাক্তক ভাবে শারীরীক নির্যাতন করেছে মাদ্রাসার শিক্ষক মো. হোসেন।

সোমবার (১৫নভেম্বর) সকালে কাঠালতলী নূরানী তা’লীমুল কুরআন মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।

শিশুটির বাবা হাসান মুরাদ বলেন, প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার সকালে আমি আমার শিশুকে মাদ্রাসায় পাঠায়।এরপর দুপুরে আনতে গিয়ে দেখি আমার শিশুকে মাদ্রাসার শিক্ষক মো. হোসেন শারীরীক ভাবে নির্যাতন করেছে । বর্তমানে আমার শিশুকে চিকিৎসা প্রদানের জন্য রাঙামাটি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নির্যাতিত শিশু বলেন, আমার মাদ্রাসার শিক্ষক মো. হোসেন আমাকে অনেক মেরেছে। আমার খুব কষ্ট হচ্ছে।এ শিক্ষক আমাকে আগে অনেকবার মেরেছে। ভয়ে মা-বাবাকে বলেনি।শিশুটি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদেরকে কাঠালতলী নূরানী তা’লীমুল কুরআন মাদ্রাসায় প্রতিদিন শিক্ষকরা বেধড়ক ভাবে মারধর করে থাকে।

কাঠালতলী নূরানী তা’লীমুল কুরআন মাদ্রাসার পরিচালক ও কালেক্টর জামে মসজিদ এর পেশ ইমাম আবুল হাসেম বলেন, আমি অভিযুক্ত শিক্ষককের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

রাঙামাটি সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তৃষা চাকমা বলেন, শিশুটিকে সুচিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

রাঙামাটি কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন বলেন, আমি বিষয়টি দেখছি।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, মাদ্রাসা এবং অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

One Reply to “রাঙামাটিতে মাদ্রাসা শিক্ষকের হাতে শিশু নির্যাতন”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 + 17 =

আরও পড়ুন