রামগড়ে উদ্ধার হওয়া লজ্জাবতী বানরের মা-শাবক ঠাঁই পেল আলুটিলার বনে

fec-image

রামগড়ে উদ্ধার হওয়া লজ্জাবতী বানরের মা ও শাবক ঠাঁই পেল খাগড়াছড়ির আলুটিলার সংরক্ষিত বনে। বুধবার(২ ডিসেম্বর) দুপুরে বিরল প্রজাতির এ দুটি বন্যপ্রাণীকে অবমুক্ত করা হয়।

খাগড়াছড়ির বিভাগীয় বন সংরক্ষক মো. সরওয়ার আলমের নেতৃত্বে আলুটিলার সংরক্ষিত বনে মা ও শাবককে বনে অবমুক্ত করা হয়। এসময় খাগড়াছড়ির সহকারী বন সংরক্ষক মোহাম্মদ হোসেন, রামগড় বন রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. এহিয়া হোসেন ও খাগড়াছড়ি সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা বাবুরাম চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

রামগড় রেঞ্জ কর্মকর্তা এহিয়া হোসেন জানান, সোমবার রামগড় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বল্টু রাম টিলা এলাকায় বৈষ্ণব বাড়ির ফল বাগানের গাছ থেকে লজ্জাবতী বানরের মা ও শাবকে ধরা হয়। বাড়ির ছোট ছেলে মেয়েরা গাছের ডালে দেখতে পেয়ে বানর দুটিকে ধরে ফেলে। পরে বাড়ির বড়রা ওদের কাছ থেকে এগুলো নিয়ে তাদের হেফাজতে রাখেন। মঙ্গলবার সকালে তার কাছে বানর দুটিকে তারা হস্তান্তর করেন।

রেঞ্জ কর্মকর্তা আরও জানান, খাগড়াছড়ি বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশে বিপন্নপ্রায় বিরল প্রজাতির বন্যপ্রাণী লজ্জাবতী বানরের মা ও শাবককে জেলা সদর সংলগ্ন আলুটিলার সংরক্ষিত বনে অবমুক্ত করা হয়। বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নিজেই উপস্থিত থেকে মা ও শাবকে অবমুক্ত করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 3 =

আরও পড়ুন