রামুতে ৬টি স্বর্ণের বারসহ আটক ২

fec-image

বিজিবি’র রামু ব্যাটালিয়ন (৩০ বিজিবি) কর্তৃক কক্সবাজারের উখিয়ার মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্ট থেকে ২ জন আসামীসহ ৯৯৬.৫০ গ্রাম ওজনের ৬টি স্বর্ণের বার আটক হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় একটি সিএনজি তল্লাশীকালে সিএনজি চালক এবং যাত্রীর আচরণ সন্দেজনক হওয়ার তাদেরকে সিএনজি হতে তল্লাশীর জন্য নামানো হয়।

বিজিবির রামু ব্যাটালিয়ন (৩০ বিজিবি) এর অধিনায়ক নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, অদ্য ১৯ আগস্ট আন্তজার্তিক চোরাচালানী চক্র বিপুল পরিমান স্বর্ণালংকার নিয়ে অবৈধভাবে মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করে উখিয়ার মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্ট অতিক্রম করতে পারে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টের তল্লাশী কার্যক্রম জোরদার করা হয়।

জানা যায়, প্রাথমিকভাবে যাত্রী মোঃ নুরুল আবছার খোকন (৩২), পিতা- মোঃ হাছন, গ্রাম-ঘুনারপাড়া, পোস্ট-বালুখালী, থানা-নাইক্ষ্যংছড়ি, জেলা-বান্দরবান (স্থায়ী ঠিকানাঃ গ্রাম-আশুলিয়া, পোস্ট-আশুলিয়া, থানা-সাভার, জেলা-ঢাকা) এবং চালক মুহাম্মদ মাঈন উদ্দিন (৩৪), পিতা-কুতুব উদ্দিন, গ্রাম-জাহাজপুরা, পোস্ট-জাহাজপুরা, থানা-টেকনাফ, জেলা-কক্সবাজার এর নিকট হতে কিছু পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে সিএনজিটি পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে তল্লাশী করা হলে সিএনজির স্টিয়ারিং বক্সের ভেতরে অভিনব কৌশলে কালো টেপ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় আনুমানিক ৬০লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৯৯৬.৫০ গ্রাম ওজনের ছয়টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ৪লক্ষ টাকা মূল্যের ১টি সিএনজি এবং ২,০০০/- টাকা মূল্যের ২টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

এসময় তারা জানায়, উক্ত স্বর্ণের বারগুলোর প্রকৃত মালিক রিপন পাল (৩৩), পিতা-প্রদুল পাল, গ্রাম-চৌধুরীপাড়া, পোস্ট-টেকনাফ, থানা-টেকনাফ, জেলা-কক্সবাজার এবং তার নিকট মালামালের বৈধ কাগজপত্র আছে। পরবর্তীতে রিপন পালকে আটককৃত স্বর্ণের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে মালিকানা প্রত্যাখ্যান করে।

কর/ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে বর্ণিত স্বর্ণ চোরাচালানী কাজে জড়িত থাকায় ওই চোরাকারবারীকে রামু থানায় সোপর্দ করা হবে এবং তার নিকট হতে উদ্ধারকৃত স্বর্ণালংকার কক্সবাজার ট্রেজারী অফিসে জমা করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস এর মহামারির মধ্যেও বিজিবি তাদের নিজ কর্তব্যে অটুট থেকে দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় বিশেষ মাদক বিরোধী অভিযানসহ সীমান্ত দিয়ে চোরাকারবারীরা যাতে বাংলাদেশ সরকারকে কর/ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে মালামাল পাচার করতে না পারে সে লক্ষ্যে বিজিবি প্রতিনিয়ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে বলেও জানা যায়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + sixteen =

আরও পড়ুন