রামুর গর্জনিয়ায় ১৫ লাখ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন

fec-image

রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নে ১৫ লাখ বৃক্ষরোপণ শুরু করেছে কক্সবাজারের দু’বনবিভাগ কর্মকর্তা (ডিএফও)। টেকসই বন ও জীবিকা প্রকল্পের আওতায় (সুফল) গর্জনিয়া ইউনিয়নের ৪শ হেক্টর বনভূমিতে বিভিন্ন প্রজাতির এসব বনজ চারা গাছ রোপণ করা হচ্ছে।

বুধবার (২৫ মে) দুপুরে গর্জনিয়ার আলিক্ষামুরা গ্রামে চারা গাছ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন- কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সরকার এবং দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা সরওয়ার আলম।

এসময় উত্তর বনবিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক ড. প্রান্তোষ চন্দ্র রায়, বাঘখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা সরওয়ার জাহান, গর্জনিয়ার পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, সংবাদকর্মী হাবিবুর রহমান সোহেল, নেজাম উদ্দিন, বাঘখালী বনবিট কর্মকর্তা রবিউল আলম, ঘিলাতলী বনবিট কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন, সৌদিয়া পরিবহনের মুফিদুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গর্জনিয়ার পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের বনে খুবই সুন্দর সুন্দর গাছ রয়েছে। কিন্তু সংরক্ষণের অভাবে তা হারিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে যেখানে বনায়ন করা হচ্ছে সেখানে বিরল প্রজাতির গাছ ছিল। কিন্তু কিছু বনদস্যু সেই গাছ কেটে ফেলেছে।’

বৃক্ষরোপণকালে কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সরকার জানান, অনেক বছর ধরে বনবিভাগের জায়গা পরিত্যক্ত ছিল। সুফল বনায়নের আওতায় সকল পরিত্যক্ত জায়গাকে সবুজ বনে রুপ দেওয়ার প্রচেষ্টা করে যাচ্ছি। আশা করছি এই কাজে সকলকে সাথে পাবো।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 − 2 =

আরও পড়ুন