রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝি খুন, আহত ২

fec-image

কক্সবাজারের উখিয়া ১৮ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীরা গলা ও পায়ের রগ কেটে হত্যা করেছে হেড মাঝি আজিমুদ্দিন (৩৫)কে। সে ১৮ নং ক্যাম্পের ব্লক-এল/১৬ এর বাসিন্দা কমল উদ্দিনের ছেলে। একই সময় আহত হয় আরো দুজন রোহিঙ্গা

৯ জুন বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৮ টার সময় ১৮ নং ক্যাম্পের বি- ব্লকের সাব-ব্লক-এম/৯ এ মাঝিরা ভলান্টিয়ার ডিউটি বণ্টনের সময় এ ঘটনা ঘটে।

কক্সবাজারস্হ ৮ এপিবিএন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরান হোসেম জানান, ১৮ নং ক্যাম্পের বি- ব্লকের সাব-ব্লক-এম/৯ এ মাঝিরা ভলান্টিয়ার ডিউটি বণ্টনের সময় সন্ত্রাসীরা অতর্কিত দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তিন জন রোহিঙ্গার উপর হামলা চালিয়ে গলা ও পায়ের রগ কেটে পালিয়ে যায়। এরা হচ্ছে ১৮ নং ক্যাম্পের ব্লক-এল/১৬ এর কমল উদ্দিনের ছেলে আজিমুদ্দিন (৩৫), মনি উল্লাহর ছেলে সৈয়দ করিম (৪০) ও নবী হোসেনের ছেলে রহিমুল্লাহ (৩৬)।

এতে গুরুতর আহত আজিমুদ্দিনকে এমএসএফ ( MSF) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কামরান হোসেম আরো বলেন, গত ২০২১ সালের অক্টোবর ক্যাম্প-১৮ তে ৬ জন খুনের ঘটনা ঘটার পর ৮ এপিবিএনের সকল ক্যাম্পে দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে নিয়মিত ব্লক রেইড অভিযান পরিচালনা এবং রোহিঙ্গাদের দ্বারা স্বেচ্ছাপাহারা সিস্টেম চালু করা হয়, ফলে দুষ্কৃতকারীরা পার্শ্ববর্তী ক্যাম্পসহ বিভিন্ন ক্যাম্পে পালিয়ে যায় । এমতাবস্থায় পুনরায় ক্যাম্পে তাদের আধিপত্য বিস্তার, আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে প্রশ্নবিদ্ধ এবং স্বেচ্ছাপাহারা সিস্টেমকে অকার্যকর করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে এসে মাঝি ও ভলান্টিয়ারদের উপর অতর্কিত আক্রমণ করে পালিয়ে যায়।

দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে ব্যাপকভিত্তিতে ব্লক রেইড অভিযান অব্যাহত আছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, থানা পুলিশের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য ২০ নং ক্যাম্প থেকে আসা প্রায় ১৫-২০ জন দুষ্কৃতিকারী এ ঘটন ঘটিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 − two =

আরও পড়ুন