লামা পৌরসভায় উৎসব-শঙ্কার ভোট কাল : নির্বাচনী প্রস্তুতি সম্পন্ন

fec-image

দ্বিতীয় ধাপে আগামীকাল শনিবার (১৬জানুয়ারী) বান্দরবানের লামা পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই পৌরসভায় ভোট হবে ব্যালেটে। সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রত্যাশা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে ম্যাজিস্ট্রেটও মাঠে নেমেছেন।

রির্টার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জহিরুল ইসলাম (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহীন (ধানের শীষ) ও জাতীয় পার্টি মনোনীত এটিএম শহীদুল ইসলাম (লাঙ্গল)। এছাড়া নয়টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৬ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

তিনি বলেন, লামা পৌরসভার ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৩৯টি বুথে ভোটগ্রহণ হবে। এসব কেন্দ্রে ভোটার সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে। নির্বাচনের দিন ৯টি ভোট কেন্দ্রের প্রতিটিতে ১জন করে নির্বাহী ও বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় তিন প্লাটুন বিজিবি ছাড়াও মাঠে র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা কাজ করবেন। থাকবে ৩টি মোবাইল টিম। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে সবধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন লামা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন।

লামা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ১৩ হাজার ৩৮৯ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৭ হাজার ৩জন ও মহিলা ভোটার হলেন ৬ হাজার ৩৮৬ জন। ভোট গ্রহণের কেন্দ্রগুলো হচ্ছে চম্মাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটার সংখ্যা যথাক্রমে ১০৫০, আদর্শ বিদ্যালয় (১৭১৭), লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (১৪১৮), চেয়ারম্যানপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৭১৪), রাজবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৫৯৩), কলিংগাবিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৪৪৪), মধুঝিরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮৪২), লাইনঝিরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৩৪২) ও শিলেরতুয়া মার্মা পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১২৬৯)।

উল্লেখ্য, এর আগে লামা পৌরসভা নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. রফিক ও ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হোসনে বাদশা বিনা প্রতিদ্বন্ধিদ্বতায় নির্বাচিত হন। গত ২০ ডিসেম্বর এই দুটি ওয়ার্ডে দুই প্রার্থী ছাড়া অন্যকোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা না দেওয়ায় তারা বিজয়ের পথে। এদিকে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় এই দুটি কেন্দ্রে কারচুপির আশংখা করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বিএনপি দলীয় মেয়র প্রার্থী মো. শাহীন।

নির্বাচনের সর্বশেষ আয়োজন বিষয়ে বান্দরবান জেলার নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, ভোটের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি গুছিয়ে রাখা হয়েছে। নির্বাচনী এলাকায় পরিবেশ ও পরিস্থিতি ভালো। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাঠে রয়েছে। কোনো ধরনের অভিযোগের প্রতিবেদন পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five − 4 =

আরও পড়ুন